প্রতিদিন ১০০ মিনিটের ঘুম কেড়ে নিচ্ছে ফেসবুক!

প্রতিদিন ১০০ মিনিটের ঘুম কেড়ে নিচ্ছে ফেসবুক!

facebook-userইন্টারনেট আসক্তি এখন মাদকাসক্তির মতই ভয়ানক পর্যায়ে চলে গেছে। ফেসবুক, টুইটার, হোয়াটসঅ্যাপ, ইমু ও স্কাইপসহ বিভিন্ন চ্যাটভিত্তিক মাধ্যমে আসক্ত হয়ে ঘুম নষ্ট করে ফেলেন অনেকে। রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে এবং ঘুম থেকে জাগার পরে আবার চেক করেন চ্যাটলিস্ট। দুই মিনিটের জন্য এসব মাধ্যমে ঢুকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা পার করে দেয় ব্যবহারকারীরা। অনেকে আবার মাঝ রাতে ঘুম থেকে উঠেও চোখ রাখেন এসব মাধ্যমে। ফলে অনেকেই গভীর ঘুম দিতে পারছেন না, যা স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্নক ক্ষতিকর।

একটি গবেষণা সংস্থা জানিয়েছে, এই সোশ্যাল সাইটের কারণে প্রতিদিনে গড়ে ১০০ মিনিট ঘুমের সময় নষ্ট হচ্ছে ব্যবহারকারীদের। তারা জানিয়েছেন, রাতে শোয়ার আগে অন্তত একবার হলেও ফেসবুক, টুইটার আর হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করেন ইন্টারনেট ইউজাররা। যদি কোন কারণে ইউজাররা এসব মাধ্যমে অনলাইনে না যেতে পারেন তবে কি যেন অপূর্ণ থেকে যায় তাদের! ফলে অনেকেরই ঘুমে সমস্যা হচ্ছে।

ভারতের বেঙ্গালুরুর ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব মেন্টাল হেলথ অ্যান্ড নিউরো সায়েন্স’র এক দল গবেষক সম্প্রতি একটি গবেষণা পরিচালনা করেছেন। তারা গবেষণা করে জানিয়েছেন, অত্যাধিক পরিমাণে ইন্টারনেট ব্যবহারের ফলে ব্যবহারকারীদের ঘুম নষ্ট হচ্ছে আর সেই সাথে নষ্ট হচ্ছে সময়। আর সেই সময়টা আবার ফেলে দেওয়ার মতো নয়। সোশ্যাল সাইটের নেশা প্রতিদিন গড়ে কেড়ে নিচ্ছে একেকজন ইউজারের ১০০ মিনিটের ঘুম। আর এ সময় নষ্ট হয়ে যাচ্ছে তাদের অজান্তেই।

গবেষকরা দাবি করেছেন, ইন্টারনেটের নেশার কারণে ঘুম থেকে উঠতেও একেকজনের গড়ে দেরি হয় প্রায় ৯০ মিনিট। চিকিৎসকদের মতে, একজন প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষের গড়ে দৈনিক ছয় ঘণ্টা ঘুমের প্রয়োজন। কিন্তু মানুষের এভাবে ঘুমের সমস্যা চলতে থাকলে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের হৃদরোগসহ নানা রোগের সমস্যা দেখা দিতে পারে। এর আগে ২০১৫ সালের আরেক গবেষণায় দেখা যায়, যেসব কম বয়সী রোগী হার্ট অ্যাটাকের সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন তাদের ৯০ শতাংশই পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমাতে পারেননি।
#ফেসবুক, #ফেস বু্‌ক, #facebook 

By Ekush News Desk on June 8, 2017 · Posted in লাইফ স্টাইল

Sorry, comments are closed on this post.