শ্রমখাতের স্বর্ণযুগ আগামী দু’বছর, রপ্তানিতে লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়েছে বাংলাদেশ

December 27, 2016 4:52 pmComments Off on শ্রমখাতের স্বর্ণযুগ আগামী দু’বছর, রপ্তানিতে লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়েছে বাংলাদেশViews: 4
Print Friendly and PDF
FaceBook YouTube

শ্রমখাতের স্বর্ণযুগ আগামী দু’বছর, রপ্তানিতে লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়েছে

আরিফুর রহমান: প্রায় আট বছর পর, শ্রমশক্তি রপ্তানিতে আবারো লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়েছে বাংলাদেশ। বিএমইটির তথ্য বলছে, ২০০৮ সালের পর, কাজ নিয়ে বিদেশে গেছেন, সাড়ে সাত লাখের বেশি জনশক্তি।ী কল্যানমন্ত্রীর দাবি, অভিবাসন খরচ কমানোসহ নানান পদক্ষেপের ফল এটি। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ওমান ও কাতারের বাজারে চাহিদা বেশি থাকায়, আগামী দু’বছর হবে বাংলাদেশের শ্রমখাতের স্বর্ণযুগ। তবে, মালয়েশিয়ার বাজার ঝুলে থাকাটাও হতাশার বলে মনে করেন তারা।
প্রায় আট বছর পর শ্রমশক্তি রপ্তানীতে আবারো লক্ষমাত্রা ছাড়িয়েছে বাংলাদেশ। বিএমইটির তথ্য বলছে, ২০০৮ সালের পর এবারই বাংলাদেশ সাড়ে সাত লাখের বেশি জনশক্তি কাজ নিয়ে পাড়ি জমিয়েছেন বিদেশে।

কল্যানমন্ত্রীর দাবি, অভিবাসন ব্যয় কমানো সহ নানান পদক্ষেপের কারণে এই লক্ষমাত্রার অর্জন।
সংশ্লিষ্টরা বলছেন, কাতার ও ওমানের বাজারে চাহিদা বেশি থাকায় আগামী দুই বছর হবে বাংলাদেশের শ্রমখাতের স্বর্ণযুগ। তবে মালয়েশিয়ার বাজার ঝুলে থাকাটাও হতাশার বলে মনে করেন তারা।
কাতারে প্রস্তুতি চলছে ২০২২ ফুটবল বিশ্বকাপের। তৈরি হচ্ছে নতুন নতুন স্টেডিয়াম আর ভবন। মাথার ঘাম পায়ে ফেলে বাংলাদেশি অভিবাসীরাও উন্নয়নের অংশীদার মরুর এই দেশটির।
এবছর যে তিনটি দেশে ১ লাখের অধিক বাংলাদেশি কাজ নিয়ে গেছেন সেগুলোর একটি কাতার। তবে নারী শ্রমিকের চাহিদা বেশি থাকায় সবচেয়ে বেশি বাংলাদেশির ঠিকানা, ওমান। আর পুনরায় বাংলাদেশের বাজার চালু হওয়া প্রথম বছরেই লক্ষাধিক শ্রমিক গেছেন সৌদি আরবে।
প্রবাসী কল্যান মন্ত্রণালয়ের হিসাব বলছে, এবছর বাংলাদেশের অভিবাসন প্রায় সাড়ে ৭ লাখ। যা গেল বছরের তুলনায় ৩২ শতাংশ বেশি। ২০০৮ সালের পর বাংলাদেশের সবচয়ে বড় বাজার সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত আর মালয়েশিয়ায় শ্রমিক নেয়া কার্যত বন্ধ থাকায় যে ভাটা ছিল, তা দীর্ঘ ৮ বছর পর কাটতে শুরু করেছে।

আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা বলছে, প্রতিবছর দেশের চাকরির বাজারে যোগ হয় প্রায় ২০ লাখ কর্মক্ষম মানুষ। এই জনশক্তির একটি অংশকে অভিবাসন করা গেলে বেকারত্বের অভিশাপ থেকে রেহাই পেতে পারে দেশ।
তবে অভিবাসন ব্যয় কমানো, মালয়েশিয়ার বাজার পুনরায় চালু করে শ্রমিকদের অধিকার নিশ্চিত করতে পারলে আরো বেশি টেকসই হবে বৈদেশিক মুদ্রা আয়ের সবচেয়ে বড় এখাত।
১৯৭৬ সালে থেকে ১৬২ দেশে প্রায় ১ কোটি ৫ লাখ বাংলাদেশি কাজ নিয়ে গেছেন বলে বিএমইটি জানিয়েছে।
সূত্র: চ্যানেল টোয়েন্টিফোর

সর্বশেষ সংবাদ

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.