২৬০০ ইউনিয়নে ব্রডব্যান্ড পৌঁছাবে দুই এনটিটিএন

দেশের অর্ধেকের বেশি ইউনিয়নে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট পৌঁছে দেবে ন্যাশনওয়াইড নেটওয়ার্ক প্রোভাইডার (এনটিটিএন) সামিট কমিউনিকেশন লিমিটেড এবং ফাইবার অ্যাট হোম।

রাজস্ব ভাগাভাগিভিত্তিক চুক্তিতে কোম্পানি দুটিকে এই কাজ দেয়ার বিষয়ে ইতোমধ্যে সরকারের ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি অনুমোদন দিয়েছে।

১ হাজার ৩০৭টি ইউনিয়নে এই সেবা নেয়ার জন্য ফাইবার অ্যাট হোমকে সরকার দেবে ১৮৯ কোটি ৯৪ লাখ টাকা আর সামিট কমিউনিকেশনস ১ হাজার ২৯৩টি ইউনিয়নের জন্য পাবে ১৮৮ কোটি ৫২ লাখ টাকা।

নেটওয়ার্ক স্থাপনের পর ২০ বছর এগুলোর ব্যবস্থাপনার দায়িত্বেও থাকবে দুই এনটিটিএন। তারা সরকার নির্ধারিত মূল্যে ঘরে ঘরে ইন্টারনেট পৌঁছে দেবে।  

এ সময় রাজস্ব ভাগাভাগির প্রথম দুই বছর সরকার কিছুই পাবে না। পরের চার বছর সরকার মোট আয়ের পাঁচ শতাংশ পাবে। তারপরের চার বছর আবার সরকারের অংশ কমে তিন শতাংশে চলে আসবে।

শেষ দশ বছর সরকার পাবে মাত্র দুই শতাংশ। তবে নেটওয়ার্কের মালিক বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলই থাকবে।

দেশে মোট ইউনিয়নের সংখ্যা সাড়ে চার হাজারের কিছু বেশি। এর মধ্যে এগার’শ ইউনিয়নকে ফাইবার অপটিক ক্যাবলের মাধ্যমে যুক্ত করেছে বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন্স লিমিটেড (বিটিসিএল)।

কম্পিউটার কাউন্সিল দু্ই হাজার ছয়’শ ইউনিয়নে নেটওয়ার্ক নেওয়ার পর বাকি থাকা আরও এক হাজার ইউনিয়নেও সংযোগ স্থাপনের কাজ করবে বিটিসিএল।

ইন্টারনেট সেবা নিয়ে সামিট ও ফাইবার অ্যাট হোমের সঙ্গে শিগগিরই চুক্তি করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল।  

তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের ইনফো সরকার-৩ প্রকল্পের জন্য চলতি বছরের মে মাসে এ বিষয়ে বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়। সে অনুসারে দুটি কোম্পানি দরপত্র জমা দেয় এবং এই দুটি কোম্পানিই এতে অংশ নেয়।

সিদ্ধান্ত অনুসারে, নেটওয়ার্ক তৈরি, ব্যবস্থাপনাসহ সকল কাজ করতে হবে কাজ পাওয়া কোম্পানি দুটির। এর জন্য তারা নিজস্ব জনবল নিয়োগ করে সেবা দেবে।

এর আগে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল জেলা এবং উপজেলা পর্যায়েও ফাইবার অপটিক ক্যাবল নেটওয়ার্ক তৈরি করেছে। ইনফো সরকার-২ এর সেই কাজ করেছে এই দুটি কোম্পানিই।

By Ekush News Desk on August 16, 2017 · Posted in বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

Sorry, comments are closed on this post.