সামারে ইমিগ্রেশন বিল পাশ হচ্ছে

সামারে ইমিগ্রেশন বিল পাশ হচ্ছে
প্রবাস রিপোর্ট: এই সামারেই বহুল আলোচিত ইমিগ্রেশন রিফর্ম বিল পাশ করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। হাউজ স্পীকার জন বোয়েহনার ঘোষণা করেছেন এই সামারের মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রের ভঙ্গুর ইমিগ্রেশন আইন যুগোপযোগী করে বিল পাশ হবে। এর আগে রিপাবলিকান সংখ্যাগরিষ্ঠ হাউস চলতি বছরে নতুন ইমিগ্রেশন আইন প্রণয়নে অনীহা প্রকাশ করে আসছিল। তবে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত ১কোটি আন-ডকুমেন্টেড ইমিগ্রান্ট সমস্যার সমাধানসহ এই দেশের আগামী দিনের অর্থনৈতিক বাস্তবতার প্রেক্ষিতে একটি শক্তিশালী ও কার্যকরী ইমিগ্রেশন আইন প্রণয়নে চলতি বছরেরই দ্রæত উদ্যোগ গ্রহণে বিভিন্ন ইমিগ্রেশন অ্যাডভোকেসী গ্রæপ ও রিপাবলিকান পার্টির শীর্ষ ডোনারদের চাপ, গত জুনে সিনেটে পাশকৃত বাইপার্টিজান সমন্বিত ইমিগ্রেশন বিলের ওপর হাউসে ডেমোক্রাটদের ফোর্স ভোট গ্রহণে সাক্ষর অভিযান এবং প্রেসিডেন্ট ওবামার ইমিগ্রেশন সংক্রান্ত কয়েকটি ইস্যুতে এক্সিকিউটিভ ক্ষমতা প্রয়োগ বিষয়টি নিয়ে হাউস রিপাবলিকানদের নতুন করে ভাবতে বাধ্য করে। এই অবস্থায় রিপাবলিকান নেতা হাউস স্পীকার জন বোয়েনার এই সামারের মধ্যে ইমিগ্রেশন রিফর্ম সম্পন্ন করা হবে বলে রিপাবলিকান পার্টির শীর্ষ ডোনারদের আশ্বস্ত করেছেন।

জন বোয়েনারের অন্যতম সহকর্মী হাউজ জুডিশিয়ারি কমিটির চেয়ারম্যান বব গুডল্যাট্টে আভাস দিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত ১ কোটি ১০ লাখ আনডকুমেন্টেডদের ১৩ বছরের মধ্যে নাগরিকত্ব প্রাপ্তির পথ করে দেওয়া এবং আরো অধিক সংখ্যক বিদেশী দক্ষ ও অদক্ষ শ্রমিকদের জন্য ভিসা ইস্যুর বিধানসহ ডেমোক্রাট ও রিপাবলিকানদের মধ্যে সিনেটে প্রাথমিক সমঝোতার ভিত্তিতে গেল বছরের জুনে সিনেটে পাশকৃত বাইপার্টিজান সমন্বিত ইমিগ্রেশন বিলটিই হাউসের বিলের মূল রূপরেখা হিসাবে গ্রহন করা হবে। তবে তিনি জানান, ৮৪৪ পাতার বিশাল ঐ বিলটি হুবুহ পাশ করার সম্ভবনা নেই। হাউস এই বিলটির মূল বিষয়গুলো ঠিক রেখে বিলটিকে ইস্যুভিত্তিক ৫টি থেকে ৭টি বিলে ভাগ করে তা পাশ করবে। সেই সাথে আনডকুমেন্টেডদের ১৩ বছরের মধ্যে নাগরিকত্ব প্রাপ্তির যে বিধান ঐ বিলে সংযুক্ত করা হয়েছেছিল সেটা আরেকটু বাড়িয়ে হয়তো ১৫ বছরে নির্ধারণ করা হতে পারে।

প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাসহ আইনপ্রনেতারা ২০১৩ সালে আনডকুমেন্টেড ইমিগ্রান্টদের অনেক আশার বাণী শোনালেও শেষ পর্যন্ত বছরটি হতাশার মধ্যে দিয়েই অতিবাহিত হয়। তবে সংশ্লিষ্ট নীতি নির্ধারকরা এখন আবার জোর গলায় বলছেন, নতুন বছর ২০১৪ সাল প্রকৃত অর্থেই হবে আনডকুমেন্টেড ইমিগ্রান্টদের বছর।

যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত ১কোটি আন-ডকুমেন্টেড ইমিগ্রান্ট সমস্যার সমাধানসহ যুক্তরাষ্ট্রের আগামী দিনের অর্থনৈতিক বাস্তবতার প্রেক্ষিতে একটি শক্তিশালী ও কার্যকরী ইমিগ্রেশন আইনের প্রয়োজনীয়তা আইনপ্রণেতাদের সবাই স্বীকার করেন। তবে এ সত্তে¡ও এই ইমিগ্রেশন আইনের রূপরেখা কেমন হবে তা নিয়ে কংগ্রেস ও হোয়াইট হাউসের মধ্যে নীতিগত পার্থক্য শেষ পর্যন্ত একটি নয়া ইমিগ্রেশন আইন প্রণয়নের দোর-গোড়ায় পৌঁছানোর পরও ২০১৩ সালে সে আইনটি প্রণয়ন করা সম্ভব হয়নি।

যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত ১ কোটি ১০ লাখ আনডকুমেন্টেডদের ১৩ বছরের মধ্যে নাগরিকত্ব প্রাপ্তির পথ করে দেওয়া এবং আরো অধিক সংখ্যক বিদেশী দক্ষ ও অদক্ষ শ্রমিকদের জন্য ভিসা ইস্যু, যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো বডীর নিরাপত্তা জোরদার করার বিধানসহ ডেমোক্রাট ও রিপাবলিকানদের মধ্যে সিনেটে প্রাথমিক সমঝোতার ভিত্তিতে গত বছরের জুনে একটি বাইপার্টিজান ইমিগ্রেশন বিল পাশ হয়। বিলটি সিনেটে পাশ হওয়ার পর ধারণা করা হয়েছিল ২০১৩ সালের মধ্যেই বিলটি হাউসে পাশ হয়ে আইনে পরিণত হবে। কিন্তু সিনেটে পাশ হওয়ার পর বিলটি হাউসে গেলে সংখ্যাগরিষ্ঠ রিপাবলিকানদের মধ্যে কট্টরপন্থীদের বিরোধিতার কারণে শেষ পর্যন্ত বিলটি কংগ্রেসে আলোচনার জন্যও গৃহীত হয়নি।
এমনকি বর্তমানে আগামী সামারের মধ্যে বিলটি পাশ হবে বলে ঘোষণাকারী হাউস স্পিকার জন বোয়েনার এর আগে কট্টরপন্থী রিপাবলিকাদের চাপে স্পষ্ট জানিয়ে দেন, সিনেট পাশকৃত বিলটি নিয়ে হাউস কোনো আলোচনা করবে না। তবে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের জন্য একটি যুগোপযোগী ইমিগ্রেশন আইন প্রণয়নের প্রয়োজনীয়তা স্বীকার করে বলেন, কংগ্রেস সিনেট পাশকৃত বিলের মতো প্যাকেজ নয়, ইস্যু ভিত্তিক পৃথক পৃথক বিল প্রণয়নের মাধ্যমে ইমিগ্রেশন সমস্যার সমাধান চায়।

হাউসে রিপাবলিকান নীতি-নির্ধারকদের সর্বশেষ অবস্থান অনুযায়ী পর্যবেক্ষকরা বলছেন, এই সামারের মধ্যে ইমিগ্রেশন বিল পাশ করা ছাড়া রিপালিকানদের কোনো পথ নেই। হাউস নেতা জন বোয়েনার, হাউস জুডিশিয়ারি কমিটির চেয়ারম্যান বব গুডল্যাট্টে, বাজেট কমিটির প্রধান পল রায়ান এমনকি ২০১৬ সালে রিপাবলিকান পার্টি থেকে প্রেসিডেন্ট পদে মনোনয়ন প্রার্থী হতে ইচ্ছুক জেব বুশসহ সকল শীর্ষ নেতা নতুন ইমিগ্রেশন আইন পাশে স্পষ্ট ইঙ্গিত দিয়েছেন। সেই সাথে তারা যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত ১ কোটি ১০ লাখ ইমিগ্রান্টের বৈধতা প্রদানেও ইতিবাচক মন্তব্য করেছেন।

সম্ভাব্য বিলে সিনেটে পাশকৃত আনডকুমেন্টেড ইমিগ্রান্টদের যেভাবে নাগরিকত্ব প্রদানের ব্যবস্থা রাখা হয়েছিল, সেই একই বিধান হয়তো সংযোজিত হচ্ছে। সিনেট পাশকৃত ৮৪৪ পৃষ্ঠার বিশাল বিলে আন-ডকুমেন্টেড ইমিগ্রান্টদের যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসের জন্য বৈধতা দেওয়ার পর ১৩ বছরে নাগরিকত্ব প্রাপ্তির কথা বলা হয়েছিল। ২০১৪ সালের সম্ভাব্য বিলে এই সময়সীমা হয়তো আরেকটু বাড়িয়ে ১৫ বছর করা হতে পারে। এ সম্পর্কিত অন্যান্য বিধানগুলো একই থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এদিকে স্পিকার জন বোয়েনারের ইমিগ্রেশন বিল নিয়ে হাউসে সামারের মধ্যে ভোট গ্রহণের ঘোষণা রিপাবলিকান পার্টির শীর্ষ নীতিনির্ধারকরা স্বাগত জানিয়েছেন। এই সম্পর্কে ১৮ এপ্রিল সিনিয়র জেফারসন সেশনসর্ তার দলের নেতাদের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানান। তিনি বলেন, একটি কার্যকরী ইমিগ্রেশন আইনের অভাবে বর্তমানে প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা তার ক্ষমতা প্রয়োগ করে গেস্ট ওয়ার্কাদের জন্য যে সুযোগ সৃষ্টি করছেন তা কিছু ক্ষেত্রে খারাপ ফলও বয়ে আনতে পারে। বিশেষ করে রাজনৈতিক ক্ষেত্রে। বর্তমানে ওবামার উপর জনগনের আস্থা কমছে। এটি পরবর্তিতে ওবামা প্রশাসনকে সাহায্য না করে মধ্যবিত্ত আমেরিকানদের জন্য ক্ষতির কারণও হতে পারে। তাই এই স¤পর্কে যে কোন আশঙ্কার আগে থেকেই রিপাবলিকানদের কাজ করা উচিত। সেসনস বলেন, সিনেটে পাশ হওয়া গ্যাং- এইট ফর্মূলার মত নতুন একটা ফর্মূলা এইবার করা যেতে পারে।
এদিকে হাউজ মেজরিটি লিডার ক্যান্টর প্রেসিডেন্ট ওবামার সাথে নতুন ইমিগ্রেশন আইন সম্পর্কে রিপাবলিকান পার্টির কিছু ধারনা নিয়ে মতবিনিময় করেছেন। তিনি বলেন, আমি আশা করি, প্রেসিডেন্ট ইমিগ্রেশশন আইন নিয়ে পার্টিজান মেসেজিং বন্ধ করে আমেরিকানদের স্বার্থে আমাদের উদ্যোগের সাথে একত্রে কাজ করতে এগিয়ে আসবেন।
সূত্রঃ সাপ্তাহিক প্রবাস