চা বিক্রেতা থেকে মুখ্যমন্ত্রী

চা বিক্রেতা থেকে মুখ্যমন্ত্রী; শপথ নিতে গিয়ে ভেঙে পড়লেন পন্নিরসেলভম

image

২৯ সেপ্টেম্বর: ভারতের তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রীর পদে শপথ নিলেন ও. পন্নিরসেলভম।  আজ (সোমবার) রাজভবনে এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানে তিনি শপথ নেন। একই সঙ্গে তার মন্ত্রীসভার ৩২ জন মন্ত্রীও শপথ নেন আজ। গভর্নর  কে রোসাইয়া মন্ত্রীদের শপথ বাক্য পাঠ করান।

৬৩ বছর বয়সি পন্নিরসেলভম শপথ গ্রহণের সময় কান্নায় ভেঙে পড়েন। মন্ত্রীদের মধ্যে অনেকেই তার সঙ্গে কাঁদতে শুরু করেন। এর আগে গতকালই এআইএডিএমকে দলের নেতা নির্বাচিত হন পন্নিরসেলভম। তাকে ওপিএস নামেই চেনে সবাই।   

থেভার সম্প্রদায় থেকে উঠে আসা প্রথম মুখ্যমন্ত্রী ওপিএস।  ২০০১ সালে তিনি তিনি প্রথম মুখ্যমন্ত্রীর আসনে বসেন। সে সময় ছয় মাসের জন্য মুখ্যমন্ত্রীর পদ সামলানোর অভিজ্ঞতা রয়েছে তার। তখনও অন্য একটি মামলায় জয়ললিতা জেলে যাওয়ায় দায়িত্বভার তাকেই সামলাতে হয়েছিল।

এবারো জয়ললিতার চার বছরের জেল হওয়ায় তিনিই রাজ্যপাট সামলাবেন। সাবেক মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতার অত্যন্ত আস্থাভাজন ওপিএস। ছয় মাসের জন্য মুখ্যমন্ত্রী হলেও তিনি একবারের জন্যও জয়ললিতার  আসনে বসেন নি। ২০০১ সালে পূর্ত দফতরের দায়িত্ব পাওয়ার পরই মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব নেয়ার ডাক পড়ে ওপিএসের। ২০০২ সালে জয়া জেল থেকে ফিরে আসার পর তার হাতে দায়িত্বভার বুঝে দিয়ে ফের পূর্ত দফতরে ফিরে যান তিনি।

২০০৬ সালে তার দল ক্ষমতা হারালে তিনি বিরোধী দলনেতার ভুমিকা পালন করেন। পরে ২০১১ সালে জয়ার ক্যাবিনেটে অর্থমন্ত্রীর পদ পান তিনি। মূলত চাষি পরিবারের মানুষ ওপিএস। তবে রাজনীতিতে আসার আগে তার চায়ের দোকানও ছিল। ওপিএসের ভাইয়ের পরিবার এখনো সেই দোকান চালান। ১৯৯৬ সালে পেরিয়াকুলাম পুরসভার চেয়ারম্যান হিসাবে তার রাজনৈতিক জীবনের শুরু হয়।

রেডিও তেহরান