Home অর্থনীতি বাংলাদেশের উবারঃ বিডিক্যাবস দেশের প্রথম ট্যাক্সি অ্যাপঃ Why Uber Wouldn’t Work in...

বাংলাদেশের উবারঃ বিডিক্যাবস দেশের প্রথম ট্যাক্সি অ্যাপঃ Why Uber Wouldn’t Work in Bangladesh

বিডিক্যাবস দেশের প্রথম ট্যাক্সি অ্যাপ

ট্যাক্সিক্যাব বা ট্যাক্সি বা ক্যাব, হচ্ছে একপ্রকার যানবাহন যা পরিবহনের জন্য গাড়ীচালকসহ ভাড়া করা করা হয় এবং যেখানে একজন অথবা একদল যাত্রী নিজেদের ও সাথে থাকা মালামাল পরিবহন এবং যাতায়াতের জন্য এটি ব্যবহার করে। একটি ট্যাক্সিক্যাব মিটারের অথবা নির্দিষ্ট ভাড়ার বিনিময়ে যাত্রীর পছন্দমত যায়গায় তাকে বা তাদেরকে পৌছে দেওয়া ব্যবস্থা করে। বিভিন্ন দেশে ট্যাক্সিক্যাব চেনার জন্য এগুলো সাধারনত হলুদ রঙের হয়ে থাকে। তবে বিভিন্ন জায়গা এবং অঞ্চলভেদে এই রঙের তারতম্য হয়। যাত্রী পরিবহনে উন্নত বিশ্বের মত বাংলাদেশেও ট্যাক্সিক্যাবের প্রচলন আছে।

বাংলাদেশে প্রথম ট্যাক্সিক্যাব নামানো হয় ১৯৯৭ সালে। সে সময় কালো রঙের নন-এসি এবং হলুদ রঙের এসি ক্যাব চালু করা হয়। একাধিক কোম্পানি ট্যাক্সিক্যাব আমদানি করে যাত্রী চাহিদার সাথে মিল রেখে । এরপর আবার, ২০০২ সালে ট্যাক্সিক্যাব আমদানি করা হয় যাত্রী সেবায়।

দীর্ঘ বিরতির পর ২০১৪ সালে ট্যাক্সিক্যাব আমদানি করা হয় । যদিও এখন সারা বাংলাদেশে চলাচল করা ট্যাক্সিক্যাব যাত্রী চাহিদার তুলনায় অনেক বেশী অপর্যাপ্ত।

কাজীর গরু খাতাপত্রে থাকলেও বাস্তবে দেখা মেলে না। ট্যাক্সিক্যাবের অবস্থাও ঠিক তেমনি। খাতাপত্রে যাই হোক বাস্তবে রাজধানীতে এখন ট্যাক্সিক্যাবের অস্তিত্ব নেই বললেই চলে। আর যাও বা আছে ,সেটা নিয়ে যাত্রীদের মধ্যে চলে তুমুল কাড়াকাড়ি।
IMG_5235
ঢাকার মতো নেতৃস্থানীয় মেগাসিটিতে ট্যাক্সিক্যাব থাকবে না কিংবা থাকলেও তার দেখা পাওয়া ডুমুরের ফুলের মতো অসম্ভব হয়ে উঠবে এটি আশা করা যায় ঢাকায় চলাচলকারী ট্যাক্সিক্যাবগুলো অবশ্য কানেক্টিভিটি হিসেবে রাজধানী ঢাকার পার্শ্ববর্তী জেলা নারায়ণগঞ্জ, মানিকগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, নরসিংদী ও গাজীপুর এ চলাচল করতে পারে।

সাধারণ যাত্রীরা ট্যাক্সিক্যাব ডাক দিয়েই সেবা পান না সহজে। এর কিছু কারণ রয়েছে , কারণগুলো হলো—

যাত্রীর তুলনায় ট্যাক্সিক্যাবের স্বল্পতা-

এক সময় ঢাকার রাস্তায় ১২ হাজার ট্যাক্সিক্যাব চলাচল করলেও এর সংখ্যা কমে এখন চার ভাগের এক ভাগ, অর্থাত্ তিন হাজারে ঠেকেছে। ক্যাব-মালিকরা বলছেন, প্রশাসনিক ‘জটিলতায়’ এবং কর্তৃপক্ষের ‘উদাসিনতার’ কারণেই রাজধানীর রাজপথ থেকে হারিয়ে যেতে বসেছে ট্যাক্সিক্যাব। এদিকে ট্যাক্সিক্যাবের সংখ্যা কমে যাওয়ায় ভোগান্তিতে পড়েছেন যাত্রীরা। মূল ভাড়ার দ্বিগুণ টাকা গুণে তাদের গন্তব্যে যেতে হচ্ছে। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের হিসাবে, ২০০৭ সালে রাজধানীতে প্রায় ১২ হাজার ট্যাক্সিক্যাব চলাচল করতো। এখন যেগুলো সচল রয়েছে, সেগুলোর মেয়াদও ২০১৩ সালের মধ্যে শেষ হয়ে গেছে।

ভাড়া সংক্রান্ত জটিলতা-

সরকার ও ট্যাক্সিক্যাব মালিক বা অপারেটরদের নির্ধারিত একটি ভাড়ার তালিকা আছে। কিন্তু ট্যাক্সিক্যাব স্বল্পতার কারণে সেটা মানা সম্ভব হয় না। এছাড়া উন্নত বিশ্বে নির্ধারিত ভাড়ার পাশাপাশি ট্যাক্সিক্যাব চালকদের টিপস/বখশিশ দেওয়ার একটি রীতি আছে ,যা বাংলাদেশে নেই। তাই যাত্রীর সাথে ট্যাক্সিক্যাব চালকদের ভাড়া সংক্রান্ত জটিলতা একটি নিয়মিত ব্যাপার।

ট্যাক্সিক্যাব চালক ও যাত্রীর মধ্যে যোগাযোগের অব্যবস্থাপনা-

সত্যিকথা বলতে কি ট্যাক্সিক্যাব চালক ও যাত্রীর মধ্যে যে আন্তঃযোগাযোগ এর নূন্যতম ব্যবস্থাই নেই। যাত্রীর যখন প্রয়োজন তখন রাস্তা বা মহল্লার মোড়ে দাড়িয়েই ট্যাক্সিক্যাব এর অপেক্ষা করছেন, হাত তুলে ডাকছেন। দরকারের সময় দেখা গেল যে, যাত্রী যে রাস্তায় অপেক্ষা করছে ট্যাক্সিক্যাবের জন্য, সেখানে কোন ট্যাক্সিক্যাব নেই, অথছ তার পাশের রাস্তাতেই ভাড়ার অপেক্ষায় ট্যাক্সিক্যাব বসে আছে। শুধুমাত্র ট্যাক্সিক্যাব চালক ও যাত্রীর মধ্যে যোগাযোগের অব্যবস্থাপনার কারনেই এমন হচ্ছে।

এসকল সমস্যার সমাধান একেবারে চোখের পলকেই না হলেও, আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তির সাহায্য নিয়ে অনেকটা সমাধান করা সম্ভব। আর এই সমাধান দিতে এশিয়ান ইনফর্মেশন টেকনোলজি লিঃ বাজারে এনেছে “বিডিক্যাবস” অ্যাপটি, যা ২০১৫ ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড মেলাতে প্রথম উদ্বোধন করা হয়।

বিস্তারিত জানতে দেখুন: www.bdcabs.com
[ ট্যাক্সিক্যাব, বিডিক্যাবস, উবার, ইউবার, ওবার ]

Why Uber Wouldn’t Work in Bangladesh

Uber sure knows how to create headlines- but unfortunately majority of those turn out to be rather infamous . Uber is an app-based network of taxis and transportations that Originated as a Californian start-up in 2010, founded by Travis Kalanick and Garett Camp.When it ventured as a start-up, Uber’s original services only included offering the hire of Luxury-cars titled as the’UberBlack’. In 2012, the company launched the ‘UberX’ program that widened the range of its services from offering traditional taxi-like services to offering any vehicle for hire backed up by a qualified driver. Uber now is available in more than 200 cities,in 53 countries across the globe. Although as cool of a concept as it initially appeared through its smart application and exponential growth of popularity among customers, Uber has nevertheless been associated with more controversies than it count count. Starting from it international launch in Paris in 2011, Uber’s negative side effect have been/ are still getting painted in bright colors across the news and media desks worldwide. Let’s just have a run down of the more recent ones:-

1. The Unquenchable thirst for Breaking Rules

Uber’s ignorance with local traffic laws and metropolitan standards have always been remarkable; some were forgiven in exchange of fines while others resulted in banning of the whole Uber service.

In the Belgian Capital Brussels, Uber has been officially termed as ‘illegal’ in June 2014 and subsequently banned. The Bruxelles-Mobilite, the federal administrator for traffic and infrastructural in Brussels, impounded around 13 Uber cars caught with drivers who failed to show their drivers’ license. In Victoria, Australia, Uber stimulated a series of legal notices and fines accumulating to Au $1723 charged by the local taxi commission.

2.The Popular-Protest-Stimulator

Throughout Europe, Uber has been alleged as a means of illegal taxi-cab operation- for being unsystematic and inconsiderate towards customer safety issues. These gave rise to protests led by local taxi-cab owners, organizations and drivers in Belgium, France and Germany. The Berlin Taxi association and taxi Deutschland threw protests and warning notices at Uber finally charging cases against it due to Uber’s reputed breach of safety compliance issues in both the German cities. In Thailand, Uber’s prices were accused of being very low that jeopardized the business of the local conventional taxi drivers and taxi-organizations.

3. The Indian Controversy

In India, Uber has gone beyond its mere legal runs and non compliance issues. In December 2014, an Uber driver in New Delhi was alleged with the rape of a woman passenger. Following this charge, newer protests hiked up against Uber’s infamous compromises with passenger safety issues and lack of seriousness before hiring drivers. It was informed that the alleged Uber driver had previous criminal records, one of which has been directly a rape charge, of which he had been acquitted in 2011. Within two days of this revelation,almost 7000 petitions were charged against Uber by the people of the Indian capital city, demanding that Uber carries out mandatory seven-years of background checks of drivers they hire for running their services. While banning Uber, Delhi’s transport department came up with various other charges against the company claiming its nonchalance with the Indian traffic laws and Taxi regulation acts.

Potential Side effects of coming to Bangladesh:-

4. Perceptions and Preferences

The traffic rules and regulations, compliance standards, safety issues and perspective judgement of the general people in Bangladesh are pretty much similar to those in India. With its not-so-flying recent colors, Uber’s most difficult undertaking might be to convince the people of Bangladesh to turn up as potential customers of their services-if Uber ever in plans to step in to the Bangladeshi market. A major amount of the general public prefer public transportations like buses to travel in rather than private taxis. There are safety concerns and trust issues which are very much prevalent among the conservative society of the typical taxi-going population in Bangladesh specially among the females. After the recent Indian rape charges against Uber, the reluctancy to accept Uber’s services might increase more in Bangladesh than it might have been a year ago.

5. Complicated market and Alien competitors

There are quite a few knots of complications- both overt and covert that surrounds the taxi/cab organizations, unions and industry in the country. These knots might be just too much for Uber to untangle; they might not be to charge metered prices in Bangladesh where the concept of a ‘meter’ is becoming a myth. Moreover, application stimulated taxi cabs might rarely rarely fit in the ‘auto-rickshaw’ scenario of taxi services in the country. Competing with auto rickshaws is going to be one alien experience Uber might not be bold enough to experiment with.

6. THE major side-effect

The unsolved and highly increasing traffic congestion issue might just be to much even for Uber’s capacity to handle! When requested for a taxi through the Uber app, a customer is usually informed roughly how much time the taxi will need to arrive by. Imagine doing that in a normal busy day traffic at Dhaka city! I don’t know about others, but I shall definitely lose my sanity waiting till eternity for a taxi to arrive! And all the frustrations might just be geared at Uber’s services itself.

Bangladesh must be one of the last places Uber might hit a success at; while Uber will be the last entity that might be trusted, as a convenient transport service, by the Bangladeshi general people to ease their lives with.

Raisa Abid

Raisa is a third year student, pursuing an Honors degree in Economics and Social Sciences. She likes to explore as many different sorts of genres of literature that She can come across- through reading or through watching movies. And then indulging into some light hearted debates, with friends and acquaintances about Theories reflected in any particular movie or piece of writing, is her usual favorite follow-up thing to do. Changing trends in Business and euphemisms of ‘social business’ sort of humors her and seem pretty exciting to her to dig about.

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.