প্রেমিকার ওড়নায় প্রেমিকের আত্মহনন

0
6
প্রেমিকার ওড়নায় প্রেমিকের আত্মহনন

ঈদের দিনে ফ্যানের সঙ্গে প্রেমিকার ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছেন প্রেমিক। ঘটনাটি ঘটেছে রাজধানীর ভাষানটেকে। আত্মহননকারীর নাম নাঈম ইবনে রেজা ওরফে পিয়াস (২১)।
স্বজনরা জানিয়েছেন, ঈদের দিন শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে নিজ ঘরে আত্মহত্যা করেন পিয়াস। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন।
পিয়াসের মামা রাহাত জানান, পিয়াসের বাবার নাম শাহ আব্বাস। তিনি প্রাক্তন সেনা কর্মকর্তা। তার দুই ছেলে। পিয়াস ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তেন। ঈদের দিন শনিবার রাতে তাদের বাসায় সবাই আনন্দ করছিল। হঠাৎ করে পিয়াস তার কক্ষে গিয়ে দরজা বন্ধ করে দেন। অনেক ডাকাডাকি করার পরও দরজা না খুললে দরজা ভেঙে স্বজনরা দেখতে পান, পিয়াস ফ্যানের সঙ্গে ঝুলছেন। এরপর সেখান থেকে নামিয়ে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
মামা আরো জানান, আদমজী ক্যান্টনমেন্ট কলেজে পড়ার সময় সহপাঠী রশ্মি নামের এক মেয়ের সঙ্গে পিয়াসের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। দীর্ঘদিন প্রেমের সম্পর্ক ভালোই চলছিল। হঠাৎ করে কয়েক দিন আগে ওই মেয়ের সঙ্গে সম্পর্কের ইতি ঘটে। ওই মেয়ের একটি ওড়না পিয়াসের কাছে ছিল। সেই ওড়না দিয়েই পিয়াস আত্মহত্যা করেছেন।
পিয়াসদের গ্রামের বাড়ি পিরোজপুর ভান্ডারিয়া উপজেলায় বলে জানান রাহাত।
এ প্রসঙ্গে ভাষানটেক থানার এসআই আজিজুল হক জানান, পরিবারের দেওয়া খবরের ভিত্তিতে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিক সুরতহাল রিপোর্ট শেষে তার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের মর্গে রাখা হয়েছে। এ ছাড়া আত্মহত্যার সময় ব্যবহৃত ওই মেয়ের ওড়নাটি জব্দ করা হয়েছে। বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

সূত্র: আলোকিত বাংলাদেশ