ব্যায়ামের পর যে কাজ করতে মানা

0
2
ব্যায়ামের পর যে কাজ করতে মানা

শরীর-মন ভালো রাখতে হলে ব্যায়ামের বিকল্প নেই। সেইসঙ্গে মস্তিষ্ক সক্রিয় রাখার জন্যও নিয়মিত শরীরচর্চা জরুরি বলে বিভিন্ন গবেষনায় দেখা গেছে। তবে ব্যায়ামের অাগে ও পরে এবং ব্যায়ামকালীন নির্দিষ্ট নিয়ম মানাও এক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। ব্যায়ামের আগে যেমন কিছু কাজ করা বিরত থাকতে হয়, ব্যায়ামের পরেও কিছু কাজ করতে মানা বিশেষজ্ঞদের। নিচে ব্যায়ামের পর যে কাজগুলো করা থেকে বিরত থাকতে হবে তা নিয়ে আলোচনা করা হলো :

ইচ্ছেমতো খাওয়া : ব্যায়ামের পর সঠিক খাবার বেছে নেওয়া গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। ব্যায়ামের পর ক্ষুধা লাগে। তখন এমনভাবে খাওয়া হয়, যেন কিছুক্ষণ আগের ব্যায়ামের কথা ভুলেই গেছেন। অধিকাংশ এক্সপার্ট মনে করেন, যথেষ্ট পরিমাণ শক্তি শেষ করার পর কার্বোহাইড্রেট এবং প্রোটিনপূর্ণ খাবার খাওয়াটাই যুক্তিযুক্ত। যদি ওজন কমাতে চান, তবে অবশ্যই স্বাস্থ্যকর খাবার খেতে হবে।

স্ট্রেচ করা : অনেকেই ব্যায়ামের পর স্ট্রেচ করতে থাকেন। কিন্তু এর চেয়ে ভারী কাজতো একটু আগেই করেছেন। তাই জিমনেশিয়ামের কাজ শেষে সরাসরি বাইরে চলে যান। এতে পেশিগুলো যত্ন ও আরাম পাবে। স্ট্রেচিং যদি করতেই চান তবে ব্যায়ামের আগে করুন।

বিরামহীন বিশ্রাম নেওয়া : ব্যায়ামের পর রিকভার করার ক্ষেত্রে অন্যতম একটি ভুল করা হয় বিশ্রাম নেওয়ার সময়। সাধারণত ভারী ব্যায়াম শেষে সবাই চেয়ারে বা বিছানায় শুয়ে বিশ্রামের কাজটি সারেন। এটা বড় ধরনের ভুল। হাঁটা-চলার মধ্যে বিশ্রামের কাজটি সেরে ফেলুন। একেবারে নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়ে থাকবেন না।

অনুভূতি লেখা : ব্যায়ামের পর আপনার কেমন লাগলো তা লেখেন অনেকে। কিন্তু কেবলমাত্র অনুভূতি লেখায় কোনো লাভ নেই। এমন বিষয় লেখবেন, যেন কোনো এক্সপার্ট আপনাকে পরামর্শ দিচ্ছেন। কতক্ষণ ব্যায়াম করবেন, কখন থেকে শুরু করতে চান ইত্যাদি ঠিক করে নিন।

এলোমেলো পরিকল্পনা করা : পরিকল্পনা ঠিক করে নিতে কোনো ভুল নেই। কিন্তু কেবল ব্যায়ামের পর কি কি করতে চলেছেন তা নিয়ে চিন্তা-ভাবনা করলে শতভাগ উপকারিতা পাবেন না। মনে রাখবেন, একটা সুস্থ ও স্বাস্থ্যকর জীবনযাপনের জন্যে ব্যায়াম করছেন। সবচেয়ে ভালো হয়, গোটা এক সপ্তাহের পরিকল্পনা ঠিক করে নেওয়া। ব্যায়ামের পর কোন ধরনের কাজ করলে আপনার বিশ্রামের কাজটি হবে বা পরিশ্রমের কোন কাজটি পরে করবেন ইত্যাদি সুষ্ঠুভাবে প্রণয়নে সুফল আসবে।

তাই শুধু ব্যায়াম নয়, এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট আনুষঙ্গিক বিষয়গুলো মেনে চলাটাও জরুরি। সূত্র : ওয়েট লস

বিডি-প্রতিদিন/