অসুস্থ মাশরাফিকে সমর্থকদের ভিন্নধর্মী উপহার

অসুস্থ মাশরাফিকে সমর্থকদের ভিন্নধর্মী উপহার

নিজস্ব 10151774_935826593150159_3174607471644483274_nপ্রতিবেদক : মাশরাফি বিন মুর্তজা- কেবলই একটি নাম নয়। এদেশের ক্রিকেটের শুরু থেকে সঙ্গে ছিলেন, নিজের হাতে টিপে টিপে আকৃতি প্রদান করেছেন। ইনজুরির কারণে জীবন বাজি রেখে খেলছেন ডাক্তারের পরামর্শ উপেক্ষা করেই। আকাশচুম্বী জনপ্রিয়তা আর তারকাখ্যাতির পরও সাদামাটা জীবনযাপনে ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে হয়ে উঠেছেন আদর্শ, উঠতি ক্রিকেটারদের কাছে পরিচিতি পাচ্ছেন সবচেয়ে বড় অনুপ্রেরণা হিসেবে।
সেই মাশরাফির শরীরটা কদিন ধরে ভালো নেই। ছেলে সাহেলের জ্বর নিয়ে দিন কয়েকের ভোগান্তির পর নিজেই আক্রান্ত হয়েছেন ডেঙ্গুজ্বরে। যার কারণে জাতীয় লীগের তৃতীয় রাউন্ডে মাঠ কাঁপানোর বদলে ভর্তি হতে হয়েছে রাজধানীর একটি হাসপাতালে। অধিনায়কের এমন দশায় মোটেও স্বস্তিতে নেই সমর্থকেরা। নড়াইল এক্সপ্রেসকে শয্যাশয়ী দেখে পরিবারের মতো আবেগ উৎকণ্ঠা ছুঁয়ে যাচ্ছে তাদেরও।
তবে অসুস্থ মাশরাফির মুখে হাসি ফোটাতে ভিন্নধর্মী এক কাজ করলেন সমর্থকেরা। প্রেরণাদায়ী মাশরাফিকে সাহস যোগাতে সমর্থকেরা তাকে উপহার দিয়েছেন একটি স্পাইডারম্যান পুতুল, রুবিক্সকিউব ও কার্ড! বাংলাদেশ ক্রিকেট সাপোর্টারস অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে রোববার মাশরাফির শয্যাপাশে পৌঁছে দেওয়া হয় এই উপহার।
bcsa-gifted-mash-400x328এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বাংলাদেশ ক্রিকেট সাপোর্টারস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি জুনায়েদ পাইকার বলেন, ‘মাশরাফি আমাদের বরাবরই প্রেরণা যোগান। আমাদের ক্রিকেটের জন্য নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে খেলছেন তিনি। তার অসুস্থতায় স্বাভাবিকভাবেই আমাদের মন খারাপ।’
এমন বিচিত্র উপহার দেওয়া দারুণ ব্যাখ্যাও দিলেন জুনায়েদ, ‘হাসপাতালে থাকতে থাকতে মাশরাফির একঘেয়েমিতা সৃষ্টি হতে পারে, তা দূর করার জন্য তাকে আমরা একটি রুবিক্সকিউব উপহার দিয়েছি। আর সঙ্গে দিয়েছি একটি কার্ড, যা দিয়ে তার দ্রুত কামব্যাক আশা করেছি। আর একটা স্পাইডারম্যানও দিয়েছি, কারণ আমরা চাই মাশরাফি সব বাধা ঝেড়ে ফেলে স্পাইডারম্যানের মতো যেন আবারও ২২ গজে ফিরে আসেন। আমাদের এই ছোট্ট উপহারটা আমরা বাংলাদেশসহ সারাবিশ্বে ছড়িয়ে থাকা মাশরাফির সমর্থকদের পক্ষ থেকে দিয়েছি।’
ডাক্তারের বিধিনিষেধের কারণে মাশরাফির সঙ্গে সমর্থকেরা দেখা করতে না পারলেও তার হাতে পৌঁছেছে ভালোবাসায় সিক্ত উপহার। ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত মাশরাফি বিন মুর্তজা এখন অনেকটাই সুস্থ হওয়ার পথে, সপ্তাহখানেকের ভিতরেই ছাড়া পাবেন হাসপাতাল থেকে।
সূত্র : বিডিক্রিকেটটিম