সুখী দাম্পত্য জীবনের বড় নিয়ামক কৃতজ্ঞতা

সুখী দাম্পত্য জীবনের বড় নিয়ামক কৃতজ্ঞতা
কৃতজ্ঞতা (প্রশংসা ও মূল্যায়ন) বিবাহিত সম্পর্ককে সুখী করতে একটি বড় নিয়ামক হিসেবে কাজ করে বলে নতুন এক গবেষণায় উঠে এসেছে।
জর্জিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন কলেজ অব ফ্যামিল অ্যান্ড কনজুমার সায়েন্স এই গবেষণা চালায়।প্রতিষ্ঠানটির সহযোগী অধ্যাপক গবেষণার সহ-লেখক টেড ফুট্রিস বলেন, আমরা গবেষণায় পেয়েছি স্ত্রীর প্রতি ইতিবাচক মূল্যবোধ আপনার বিবাহিত সম্পর্কে সরাসরি প্রভাব ফেলে। সম্পর্কের প্রতি আপনি কতটা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ এবং এর স্থায়ীত্বের ব্যাপারে আপনার বিশ্বাসও কতটুকু।

টেলিফোনের সংলাপের মাধ্যমে চালানো জরিপে ৪৬৮ বিবাহিত ব্যক্তিকে তাদের আর্থিক অবস্থা, চাওয়া-পাওয়া এবং স্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ সম্পর্কে প্রশ্ন করা হয়।ফলাফলে দেখা যায়, স্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতাবোধ বিয়ের সম্পর্কটাকে শক্তিশালী করতে তাৎপর্যপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

গবেষোণার প্রধান লেখিকা অ্যালেন বার্টন বলেন, এই কৃতজ্ঞতা আসলে স্ত্রীকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ বলার একটা গুণ। যদি কোনো দম্পতি অন্য কোনো জটিল বা প্রতিকূল পরিবেশেও পড়েন তখনও এই পারস্পারিক কৃতজ্ঞতাবোধ পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে সাহায্য করে।

গবেষণায় আরও বলা হয়, প্রচণ্ড রকমের কৃতজ্ঞতাবোধ নারী-পুরুষের বিবাহ বিচ্ছেদ প্রবণতা কমায়। তাছাড়া বিয়ের আগে ও পরে প্রাপ্তি ও প্রত্যাশার গড়মিল নিয়ে বিরোধ তৈরি হয় তা মেটাতে এই বিষয়টি ভাল ভূমিকা রাখে।