বরিশাল বোর্ডে পাশের হার ৭১ দশমিক ৬৯ঃ এগিয়ে মেয়েরা

বরিশাল শিক্ষা বোর্ডে এইচএসসি পরীক্ষায় এবছর পাশের হার ৭১ দশমিক ৬৯ । জিপিএ -৫ পেয়েছে এক হাজার ৮৫৩ জন। এরমধ্যে বিজ্ঞান বিভাগে পাশের হার ৬৮ দশমিক ৮১ ভাগ, মানবিক ও ইসলামি স্টাডিজে পাশের হার ৬৬ দশমিক ৬ ভাগ এবং ব্যবসা প্রশাসনে পাশের হার ৮০ দশমিক ২৪ ভাগ।
Barisal HSC Result @ Ekush.info
বরিশাল বোর্ডে এবার ৫২ হাজার ৯০৪ জন শিক্ষার্থী ফরম পূরণ করে। কিন্তু অংশগ্রহন করে ৫২ হাজার ১৭৩ জন । বহিস্কার হয় ৮৭ জন। এদেরমধ্যে ৩৭ হাজার ৪০৩ জন পাশ করেছে। মেয়েদের পাশের হার শতকরা ৭২ দশমিক ৮২ ভাগ অর্থাৎ পাশ করেছে ১৯ হাজার ৬২ জন। ছেলেদের পাশের হার ৭০ দশমিক ৫৫ ভাগ অর্থাৎ পাশ করেছে ১৮ হাজার ৩৪১ জন ।
টোটাল পয়েন্টের ভিত্তিতে বরিশাল ক্যাডেট কলেজ প্রথম, অমৃতলাল দে কলেজ দ্বিতীয় এবং বরিশাল সরকারি মহিলা কলেজ তৃতীয় স্থান লাভ করেছে।

বিগত বছরগুলোর মতো এবারও এইচএসসি পরীক্ষায় বরিশাল শিক্ষাবোর্ডে সবক্ষেত্রে শীর্ষে ক্যাডেট কলেজ। এ কলেজের ৪৬ জন শিক্ষার্থীর সবাই জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে। বোর্ড র‌্যাঙ্কিংয়ে ক্যাডেট কলেজের পয়েন্ট হচ্ছে ৯০। নিয়মিত ও অনিয়মিত মোট শিক্ষার্র্থী, অংশগ্রহণকারী পরীক্ষার্থী এবং জিপিএ-৫ সহ অন্যান্য গ্রেডে পাসের হার অনুযায়ী প্রাপ্ত র‌্যাঙ্কিংয়ের মাধ্যমে শীর্ষ ২০টি কলেজের তালিকা করা হয়েছে বলে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মুহাম্মদ শাহ্ আলমগীর জানান। গত বছরের দ্বিতীয় অমৃত লাল দে মহাবিদ্যালয় এবার ৭১ দশমিক ৩৬ পয়েন্ট পেয়ে একই স্থানে বহাল রয়েছে। এ কলেজের নিয়মিত-অনিয়মিত ৮৭০ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছে ৮০৫ জন। ২৪৫ জন জিপিএ-৫ পেয়েছে। তৃতীয় স্থানে থাকা বরিশাল সরকারি মহিলা কলেজের পয়েন্ট হচ্ছে ৬৪ দশমিক ৩৬। এ কলেজের নিয়মিত-অনিয়মিত ৮৫৮ জন পরীক্ষায় অংশ নেয় এবং ১১২টি জিপিএ-৫সহ পাস করেছে ৭৩১ জন। চতুর্থ বরিশাল সরকারি সৈয়দ হাতেম আলী কলেজের বোর্ড র‌্যাঙ্কিং পয়েন্ট ৬৩ দশমিক ৬০। এ কলেজের ৮০৩ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১২৯ জন জিপিএ-৫ প্রাপ্তিসহ ৬২৬ জন পাস করেছে। পঞ্চম স্থানে গৌরনদীর মাহিলা ডিগ্রি কলেজ। এ কলেজের পয়েন্ট ৬৩ দশমিক ৫১। এ কলেজ থেকে ৪৯১ জন পরীক্ষায় অংশ নিয়ে পাস করেছে ৪৩৫ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩৬ জন। বরগুনার আমতলী ডিগ্রি কলেজ রয়েছে ষষ্ঠ স্থানে। তাদের পয়েন্ট হচ্ছে ৬২ দশমিক ৪৯। এ কলেজ থেকে ৬৩৭ জন পরীক্ষায় অংশ নেয়। ৪৪ জন জিপিএ-৫ প্রাপ্তিসহ পাস করেছে ৫৪৯ জন। সপ্তম বরগুনার পাথরঘাটা ডিগ্রি কলেজের পয়েন্ট ৬১ দশমিক ২৮, অষ্টম পিরোজপুরের স্বরূপকাঠী শহীদ স্মৃতি কলেজের পয়েন্ট ৬১ দশমিক ১৮, নবম উজিরপুর সৈয়দ আজিজুল হক কলেজের পয়েন্ট ৬০ দশমিক ৭৯ এবং দশম পিরোজপুর সরকারি মহিলা কলেজের কলেজের পয়েন্ট হচ্ছে ৬০ দশমিক ৭০। এগারতম থেকে বিশতম স্থানে অবস্থান করা ১০টি কলেজ হচ্ছে যথাক্রমে বরিশালের উজিরপুর উপজেলার গুঠিয়া আইডিয়াল কলেজ, বরিশাল মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, পটুয়াখালীর দুমকি জনতা কলেজ, বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাত কলেজ, ভোলা সরকারি কলেজ, বরিশালের বাবুগঞ্জ কলেজ, হিজলা কলেজ, বরগুনার বেতাগী উপজেলা ডিগ্রি কলেজ, বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার আগরপুর কলেজ ও উজিরপুর উপজেলার আলহাজ বিএন খান ডিগ্রি কলেজ।

মেয়েরা এগিয়ে : বরিশাল শিক্ষা বোর্ডে এবার এইচএসসি পরীক্ষায় মেয়েরা এগিয়ে রয়েছে। এখানে ছেলেদের পাসের হার ৭০ দশমিক ৫৫। বিপরীতে মেয়েদের পাসের হার ৭২ দশমিক ৮২ ভাগ এবং জিপিএ-৫ পেয়েছে ৯৬০ জন। অন্যদিকে ছেলেদের মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৮৯৩ জন। বিভাগভিত্তিক ফলাফলেও মেয়েরা ভালো করেছে। বিজ্ঞান বিভাগে ছেলেরা পাস করেছে ৬৬ দশমিক ৬১ ভাগ এবং মেয়ে পাসের হার হচ্ছে ৭১ দশমিক ৮২ ভাগ। মানবিক বিভাগে ছেলে পরীক্ষার্থী পাস করেছে ৬৩ দশমিক ৩৪ ভাগ এবং মেয়ে পরীক্ষার্থী পাস করেছে ৬৯ দশমিক ৩৩ ভাগ। ব্যবসায় বাণিজ্য বিভাগে ছেলেদের পাসের হার হচ্ছে ৬৩ দশমিক ৩৪ এবং মেয়েরা হচ্ছে ৬৯ দশমিক ৩৩ ভাগ।

পাসের হারে বরিশাল জেলা এগিয়ে : বরিশাল শিক্ষা বোর্ডে ৬ জেলার মধ্যে বরিশাল জেলা দ্বিতীয়বারের মতো এ বছরও পাসের হারে সেরা হয়েছে। এবার বরিশাল জেলায় পাসের হার হচ্ছে ৭৫ দশমিক ৩২। এ জেলার ৮৫টি কলেজ থেকে ১৮ হাজার ৭৯৫ জন পরীক্ষা দিয়ে পাস করেছে ১৪ হাজার ১৫৭ জন। জিপিএ-৫ পেয়ে পাস করেছে ৯৯৭ জন পরীক্ষার্থী। গত বছরের মতো এবারও দ্বিতীয় পিরোজপুর জেলা। পাসের হার ৭৪ দশমিক ১৫। এ জেলার ৩৭টি কলেজ থেকে ৬ হাজার ৯০৫ জন পরীক্ষা দিয়ে পাস করেছে ৫ হাজার ১২০ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৭৩ পরীক্ষার্থী। তৃতীয় হয়েছে ঝালকাঠি জেলা। জেলার ২০টি কলেজ থেকে ৪ হাজার ২৪৩ জন পরীক্ষা দিয়ে পাস করেছে ৩ হাজার ৭৮ জন। জেলায় পাসের হার ৭২ দশমিক ৫৪। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৯৭ জন। চতুর্থ স্থান পেয়েছে বরগুনা জেলা। এ জেলায় পাসের হার হচ্ছে ৭১ দশমিক ৭১। এ জেলার ২৫টি কলেজ থেকে ৫ হাজার ৭৬১ জন পরীক্ষা দিয়ে পাস করেছে ৪ হাজার ১৩১ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৭৩ জন। পটুয়াখালী জেলা গত বছরের মতো এবারও পঞ্চম স্থানে রয়েছে। এ জেলায় ৬৯ দশমিক ৯৫ ভাগ পরীক্ষার্থী পাস করেছে। জেলার ৫৭টি কলেজ থেকে ৯ হাজার ৬৯৯ জন পরীক্ষায় অংশ নিয়ে পাস করেছে ৬ হাজার ৭৮৪ জন। এ জেলা থেকে জিপি-৫ পেয়েছে ১৮৯ জন পরীক্ষার্থী। ভোলা জেলা এবার ফলাফল বিপর্যয়ে পড়েছে। গত বছর তৃতীয় স্থান থাকলেও এবার ষষ্ঠ স্থানে নেমে গেছে। ভোলা জেলায় ৬১ দশমিক ০৫ ভাগ পরীক্ষার্থী পাস করেছে। জেলার ৪১টি কলেজ থেকে ৬ হাজার ৭৭০ জন পরীক্ষা দিয়ে পাস করেছে ৪ হাজার ১৩৩ জন।

তিন কলেজে শতভাগ পাস : এইচএসসি পরীক্ষায় এবার বরিশাল বোর্ডে ২৬৫টি কলেজের মধ্যে তিনটি কলেজের শিক্ষার্থীরা শতভাগ পাসের কৃতিত্ব দেখিয়েছে। কলেজগুলো হচ্ছে বরিশাল ক্যাডেট কলেজ, পটুয়াখালী সদরের বিএসএল মহিলা কলেজ ও বাবুগঞ্জ উপজেলার কেদারপুর সোনার বাংলা কলেজ। তবে শতভাগ পাসের কৃতিত্ব থাকলেও বিএসএল মহিলা কলেজ ও কেদারপুর সোনার বাংলা কলেজ তেমন কোনো আগ্রহ নেই বোর্ড কর্তৃপক্ষের। কারণ কলেজ দুটি থেকে মাত্র তিনজন অনিয়মিত পরীক্ষার্থী অংশ নিয়ে শতভাগ পাসের গৌরব লাভ করে।