১২৫ কোটি টাকার বিদেশি বিনিয়োগ পেয়েছে ‘সহজ রাইডস’

১২৫ কোটি টাকার বিদেশি বিনিয়োগ পেয়েছে ‘সহজ রাইডস’

২০১৪ সালে অনলাইনে বাসের টিকেট বিক্রির মধ্যদিয়ে যাত্রা শুরু করেছিল ‘সহজ’। পরবর্তীতে ট্রেনের টিকেট, খেলার টিকেট বিক্রি শুরু হয় এই প্লাটফর্মে। বর্তমানে প্রতিষ্ঠানটির রাইড শেয়ারিং সেবাও চলমান রয়েছে। সম্প্রতি এই দেশিয় রাইড শেয়ারিং সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানটিতে ১২৫ কোটি টাকার বিদেশি বিনিয়োগ হয়েছে। বাংলাদেশের রাইড শেয়ারিং সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানটিতে এমন বিনিয়োগের প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে সংবাদ মাধ্যম টেকক্র্যাঞ্চে। প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, সহজ রাইড শেয়ারিং দেড় কোটি ডলারের বিনিয়োগ পেয়েছে। এই বিনিয়োগ তারা পেয়েছে সিঙ্গাপুর ও চীনের উদ্যোক্তাদের কাছ থেকে। এই বিনিয়োগ কার্যক্রমে রয়েছে সিঙ্গাপুরের গোল্ডেন গেটস ভেঞ্চার কোহ বুন হোয়ি, চীনের লিনিয়ার ভেঞ্চার ক্যাপিটাল ও  ৫০০ স্টার্টআপ। সহজের আগে আরেক দেশিও অ্যাপভিত্তিক রাইড শেয়ারিং পাঠাও ইন্দোনেশিয়ার গো জ্যাকের কাছ থেকে এক কোটি ডলারের বিনিয়োগ পেয়েছিল বলেও জানায় টেকক্র্যাঞ্চ। এ বিষয়ে টেকক্র্যাঞ্চকে মালিহা কাদির বলেন,‘বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায় প্রায় ১৮ মিলিয়ন মানুষ প্রতিদিন যাতায়ত করে। বিপুল সংখক এই মানুষের জন্য যাতায়ত ব্যবস্থা সীমিত রয়েছে।’ এই বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়েই প্রথমে রাজধানীতে সহজ রাইডস এর  সেবা চালু করা হয়েছিল যা সারাদেশে বিস্তৃত করার চেষ্টা চলছে। খুব দ্রুত সময়ে রাজধানীতে এই সেবাকে দ্বীগুণ করা হবে এবং রাজধানীর বাইরের শহরগুলোতেও এই সেবাকে ছড়িয়ে দেয়া হবে। সহজ অ্যাপের মাধ্যমে ইতোমধ্যে প্রতি মাসে ১০ লাখের বেশি রাইড দিচ্ছেন গ্রাহকরা। গ্রাহকসেবা ও সম্প্রসারণ নিয়ে কাজ করতে ব্যস্ত তার কোম্পানি। এবিষয়ে মালিহা কাদির বলেন, যাত্রার জন্য বাসের টিকেট বিক্রির সেবাটি চলমান থাকবে। এটি যাত্রীদের যাত্রাকে আরো সহজ করে।’ তিনি আরো বলেন,‘বাংলাদেশে বিনিয়োগ করলে অনেক কিছুই করা সম্ভব বলে আমি মনে করি। সম্প্রতির বিনিয়োগে দেশে রাইড শেয়ারিংয়ে একটি প্রভাব পড়বে এবং বাংলাদেশ ব্যবসার জন্য একটি সবুজ ক্ষেত্র। উল্লেখ্য, এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের সিলিকন ভ্যালির অন্যতম ভেঞ্চার ক্যাপিটাল কোম্পানি ফেনক্সের বিনিয়োগও পেয়েছে সহজ।