প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চান প্রযোজকরা: টিভি চ্যানেলের কাছে ১০০ কোটি টাকা আটকা

প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চান প্রযোজকরা

বেসরকারি টিভি চ্যানেলগুলোর কাছে প্রযোজকদের ১০০ কোটি টাকারও বেশি বকেয়া জমেছে বলে দাবি করেছে টেলিভিশন প্রোগ্রাম প্রডিউসার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ।

বৃহস্পতিবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১টায় বকেয়া আদায়ের দাবিতে ঢাকা রিপোটার্স ইউনিটিতে একটি সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে প্রযোজকদের সংগঠন টেলিভিশন প্রোগ্রাম প্রডিউসার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টেলিপ্যাব)। এখানে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সভাপতি মামুনুর রশীদ ও সাধারণ সম্পাদক ইরেশ যাকেরসহ পাওনাদার প্রযোজকরা। সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এই চ্যানেলগুলোকে প্রযোজকদের বকেয়া পরিশোধ করার আহ্বান জানিয়েছেন তারা।

সংগঠনের সভাপতি মামুনুর রশীদ বলেন, ‘এর আগেও চ্যানেলের কাছে বহু টাকা আটকা পড়েছিল। আমরা সেই টাকা অনেক কষ্ট করে আদায় করেছি। এবারও প্রযোজকদের প্রায় ১০০ কোটি টাকার মতো আটকে আছে। অনেক চেষ্টা করেও সেই টাকা আমরা উদ্ধার করতে পারছি না। আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সহযোগীতা চাইছি। তার হস্তক্ষেপ কামনা করছি এই সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে। তিনি যেনো বিষয়টিকে গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করেন। তাহলে হয়তো এই সমস্যার সমাধান হতে পারে।’

চ্যানেলগুলোতে গেল কয়েক বছর ধরে ধারাবাহিক, খণ্ড নাটক এবং টেলিফিল্ম প্রচার হয়েছে। কিন্তু সেই সবের জন্য বেশিরভাগ টাকা পাননি সংশ্লিষ্ট প্রযোজকরা। অনেক নির্মাতা ও প্রযোজকদের সঙ্গে নানারকম তিক্ত ঘটনারও জন্ম দিয়েছে বেশ কিছু টিভি চ্যানেল। দফায় দফায় চিঠি চালাচালি ও মিটিং করেও কোনো সুরাহা পাননি অনেক প্রযোজক। অনেকেই বাধ্য হয়ে বন্ধ করে দিয়েছেন ধারাবাহিক নাটক ও অনুষ্ঠানের প্রচার। আবার কিছু কিছু ধারাবাহিকের পুনঃপ্রচারও চলছে। অথচ সেই নাটকে লগ্নিকৃত টাকাই পরিশোধ করেনি টিভি চ্যানেল।