‘আমার হার্ট, তোমার হার্ট’। হৃৎপিণ্ড নিয়ে সমমনা মানুষকে একীভূত করে সচেতন করতে হবে

সেমিনারে বিশেষজ্ঞরা

বুকে ব্যথা হলে গবেষণা করার কোনো সুযোগ নেই

বুকে ব্যথা হলে গবেষণা করার কোনো সুযোগ নেই। দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে হাসপাতালে যেতে হবে। ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখার পাশাপাশি বছরে একবার হলেও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে হবে। আজ শনিবার বিশ্ব হার্ট দিবস উপলক্ষে প্রথম আলো এবং ফরচুন ফরটিফাইড রাইস ব্র্যান অয়েল যৌথভাবে আয়োজিত ও ইউনিভার্সেল কার্ডিয়াক হাসপাতালের সহযোগিতায় সেমিনারে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা এ কথা বলেছেন।

কারওয়ান বাজারে সিএ ভবনের মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত ‘সুস্থ হার্টের অঙ্গীকার’ শীর্ষক সেমিনারে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা বলেন, দেশের মানুষের গড় আয়ু ৭০ বছরের বেশি। কিন্তু সচেতনতা, ভ্রান্ত ধারণা, খাদ্যাভ্যাস না মানাসহ বিভিন্ন কারণে দেশে অল্প বয়সে হঠাৎ হৃদরোগে আক্রান্ত (হার্ট অ্যাটাক) মানুষের সংখ্যা বেড়েই চলছে। একটু সচেতন হলেই অনেক ক্ষেত্রে হৃদরোগের ঝুঁকি কমানো সম্ভব।

মিলনায়তনে একদিকে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের আলোচনা চলতে থাকে, অন্য পাশেই চলে হার্ট ক্যাম্প। বিভিন্ন পেশার প্রতিনিধি হাজির হয়েছিলেন নিজের হার্ট বা হৃদয়ের অবস্থা জানার জন্য।

সেমিনারে রাজধানীর ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক চিকিৎসক আশীষ কুমার চক্রবর্তী বলেন, এবার বিশ্ব হার্ট দিবসের প্রতিপাদ্যই ছিল, ‘আমার হার্ট, তোমার হার্ট’। অর্থাৎ হৃৎপিণ্ড নিয়ে সমমনা মানুষকে একীভূত করে সচেতন করা। অনেকের ধারণা, বয়স না হলে হৃদয়ের অসুখ হবে না। কিন্তু ১৬ বছর বয়সী ছেলেরও বাইপাস সার্জারি হচ্ছে।

আশীষ কুমার চক্রবর্তী আঁশযুক্ত খাবার বেশি করে খাওয়া, পরিশ্রম বেশি করা এবং মাছ ও সবজি খাওয়ার পরামর্শ দেন। একইভাবে ধূমপান ও মদ্যপান থেকে বিরত এবং ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে বলে উল্লেখ করেন তিনি। বুকে ব্যথা হলে তেল মালিশ করে বা গ্যাসের ব্যথা মনে করে অযথা কেউ যাতে সময় নষ্ট না করেন, সে অনুরোধও করেন তিনি ।

রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের হার্ট বিশেষজ্ঞ এম এ হাসনাত বলেন, দেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নের পাশাপাশি মৃত্যুর কারণেও পরিবর্তন ঘটেছে। আগে সংক্রামক ব্যাধি মৃত্যুর প্রধান কারণ ছিল, বর্তমানে হৃদরোগসহ বিভিন্ন অসংক্রামক ব্যাধি সে স্থান দখল করেছে। তিনি বলেন, হার্ট অ্যাটাকের প্রধান লক্ষণ হলো বুকের ঠিক মাঝখানে তীব্র চাপ দেওয়া ব্যথা হবে। এ ব্যথা বাম হাতে কনুই পর্যন্ত বিস্তৃত হতে পারে। গলার ভেতরে চাপ অনুভব হতে পারে। শ্বাসকষ্ট দেখা দিতে পারে। ডায়াবেটিস রোগী বা বয়স্ক মানুষের ক্ষেত্রে ব্যথা ছাড়াও হার্ট অ্যাটাক হতে পারে। তবে হার্ট অ্যাটাক হঠাৎ করে হয় না, আগে থেকেই সিগনাল দিতে থাকে।

বিশ্ব হার্ট দিবসে প্রথম আলো এবং ফরচুন ফরটিফাইড রাইস ব্র্যান অয়েল আয়োজিত ও ইউনিভার্সেল কার্ডিয়াক হাসপাতালের সহযোগিতায় সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। ছবি: প্রথম আলো

স্বাগত বক্তব্যে প্রথম আলোর বিদেশ সংস্করণ সম্পাদক সেলিম খান বলেন, মানুষের জীবনযাত্রায় ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে। রাজধানীতে হাঁটার মতো পরিবেশ নেই। শিশুরা ফ্ল্যাটের মধ্যে শারীরিক পরিশ্রম করা ছাড়াই বড় হচ্ছে। ফলে সবকিছু মিলে হৃদরোগের ঝুঁকি বেড়েই চলছে। হার্টের চিকিৎসা ব্যয়বহুল, তাই পরিবারের কোনো সদস্য এ রোগে আক্রান্ত হলে পরিবার আর্থিক ও মানসিক সব দিক থেকে বিপর্যয়ের মুখে পড়ে। তাই সচেতনতার কোনো বিকল্প নেই বলে তিনি উল্লেখ করেন।

ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কনসালটেন্ট সানিয়া হক হাইপারটেনশন, ডিসলিপিডেমিয়াসহ হৃদরোগের ঝুঁকির জন্য দায়ী বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন।

আলোচনা শেষে সেমিনারে আসা অতিথিদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা। এ ছাড়া প্রথম আলো, ফরচুন ফরটিফাইড রাইস ব্র্যান অয়েল এবং ইউনিভার্সেল কার্ডিয়াক হাসপাতাল—এই তিনটি সংস্থা যৌথভাবে গতকাল রাজধানীর আটটি পার্কে হার্ট ক্যাম্পের আয়োজন করে।