নিউইয়র্ক সফর শেষে ক্যালিফোর্নিয়ায় আওয়ামী পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

নিউইয়র্ক সফর শেষে ক্যালিফোর্নিয়ায় আওয়ামী পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭৩তম অধিবেশনে যোগ দিতে গত সেপ্টেম্বরে নিউইয়র্কে আসেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সপ্তাহব্যাপী সরকারি সফরে প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগদানের পাশাপাশি বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ কর্মসূচিতে যোগদান করেন। প্রধানমন্ত্রীর যুক্তরাষ্ট্র সফরের প্রথম দিন সন্ধ্যায় নিউইয়র্কের মিডটাউনের হোটেল হিলটনে প্রবাসী বাংলাদেশিদের দেওয়া এক সংবর্ধনায় যোগ দেন।

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগদানের ফাঁকে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন ষ্টেট ও কানাডা থেকে আসা দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে নিউইয়র্কের গ্র্যান্ড হায়াত হোটেলে মিলিত হন।

প্রতিবছরের মত এই বছরও ক্যালিফোর্নিয়া থেকে আওয়ামী নেতাকর্মীদের দুইটি বিশাল দল অংশ নেয়। তারা সাংগঠনিক তৎপরতার অংশ হিসাবে প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী, ব্যবসায়ী, সাংবাদিকদের সাথে মিলিত হন। তারা যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সেল আয়োজিত নীতিনির্ধারণী সভায় অংশ নেন। এই সভায় বক্তৃতা দেন ক্যালিফোর্নিয়া স্টেট আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকির খান।

বাংলাদেশ সহ নিউইয়র্কের অনেক মিডিয়াতে ক্যালিফোর্নিয়ার সফরকারী দলের ব্যাপক প্রচারণা হয়।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ,ক্যালিফোর্নিয়া শাখার সভাপতি তৌফিক ছোলেমান খান তুহিন গত ১২ অক্টোবর সন্ধ্যায় লস এঞ্জেলেসের স্থানীয় এক রেস্টুরেন্টে ক্যালিফোর্নিয়া আওয়ামী পরিবারের এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য তুলে ধরেন। প্রধানমন্ত্রীর সাথে সরাসরি সাক্ষাৎকার নিয়ে বিশদ বর্ণনা দেন তৌফিক ছোলেমান খান তুহিন। আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নেত্রীর হাতকে সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে দিক নির্দেশনা ও বিভিন্ন মহাদেশের আওয়ামী লীগারদের সাথে নেটওয়ার্কিং করার জন্যই ক্যালিফোর্নিয়া থেকে ১০ জনের এই নিউইয়র্ক সফর। প্রবাসে নেত্রীর বিশাল জনপ্রিয়তা ও নেতাকর্মীদের উচ্ছ্বাসের শহরে পরিনত হয় নিউইয়র্ক। অসংখ্য নেতা-কর্মীদের আগমনে মুখরিত হয়ে উঠে নিউইয়র্কের গ্র্যান্ড হায়াত হোটেলের লবী। আমিও গ্র্যান্ড হায়াত হোটেলে অবস্থান করি। নেত্রী ও ডেলিগেটদের সাথে দেখা করার জন্য প্রচুর জনসমাগমের কারনে নিরাপত্তার দিকে লক্ষ্য রেখে হোটেল লবীতে প্রবেশাধিকার সংকুচিত করা হয়। সেই হোটেলে অন্যান্য দেশের ডেলিগেটরাও অবস্থান করেন। আমাদের দেশের মত এত নেতাকর্মীদের ভীড় কোন দেশেরই প্রধানদের মোকাবেলা করতে দেখা যায়না। সাতদিন হোটেল লবীতে নেত্রীর জন্য অপেক্ষা করার ফাকে তাদের সাথে শত ব্যস্ততার মাঝে সময় বের করে নেত্রী দেখা করেন। তবে দুরত্ব বিবেচনা করে নেত্রী ক্যালিফোর্ণিয়া ও কানাডার ডেলিগেটদের প্রাধান্য দিতে চেষ্টা করেন।

এই প্রসংগে ক্যালিফোর্নিয়ায় বসবাসরত যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উপদেষ্টার সাম্প্রতিক বক্তব্যের কঠোর সমালোচনা করে বলেন, কারো মাধ্যমে বা কারো সিংগেচার নিয়ে নেত্রীর সাথে দেখা করার মন্তব্য সত্যিই দুঃখজনক। দলের ক্রান্তিকালে যাদের দেখা যায় নাই বা যারা পরিক্ষিত আওয়ামী সৈনিক নয় তাদেরকে ব্যক্তি স্বার্থে দলকে ব্যবহার করতে দেয়া যাবেনা। এই ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান তৌফিক ছোলেমান খান তুহিন। ক্যালিফোর্নিয়া স্টেট আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকির খানের নামে মিথ্যা অপপ্রচারে তিনি বিষ্ময় প্রকাশ করেন। তিনি আগামী জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে স্থানীয় সাংবাদিক ও বিশিষ্ট ব্যাক্তিদের সংযুক্ত করার ঘোষনা দেন যাতে কোন মহলের মিথ্যাচার ও সফরের নিরপেক্ষতা বজায় থাকে। এই ব্যাপারে একুশ নিউজ মিডিয়ার প্রধান জাহান হাসানের পরামর্শকে তিনি স্বাগত জানান।
নেত্রীর সাথে ছবি তোলা নিয়ে যে প্রতিযোগিতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে তার প্রচন্ড নিন্দা জানান বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, ক্যালিফোর্নিয়া শাখার সহ সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান সিদ্দিক। তিনি বলেন নেত্রী নিউইয়র্ক এ পৌছবার আগেই আমরা যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সকল প্রস্তুতি সভায় অংশ নিয়ে নেত্রীর সফর যাতে সার্থক ও নিরাপদ হয় তার ব্যবস্থাপনায় অংশ নেই। যা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, ক্যালিফোর্নিয়া শাখাকে লীডারশিপ রোলে নিয়ে যেতে সাহায্য করে।

তথাকথিত মূলধারার ষ্টেট আওয়ামী লীগ ও অগনতান্ত্রিক ভাবে ষ্টেট যুবলীগের নাম নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সাথে সুবিধাবাদী কর্মীদের ছবি তুলে এনে তা ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার ও তা নিয়ে অপপ্রচার করে যারা আওয়ামী লীগ ও তার অংগ সংগঠনগুলির ভাবমূর্তিকে ক্ষুন্ন করার অপপ্রয়াস চালাচ্ছে তাদেরকে চিহ্নিত করে মোকাবেলা করার আহ্বান জানান ক্যালিফোর্নিয়া আওয়ামী স্টেট যুবলীগের নির্বাচিত সভাপতি তাপস নন্দী। নির্বাচনের বছরে বিএনপি জামাত যখন নেত্রীর নিউইয়র্ক সফরে শোডাউন করার প্রস্তুতি নিচ্ছে তখনই ক্যালিফোর্নিয়া ষ্টেট যুবলীগ ও আওয়ামী লীগ ক্যালিফোর্নিয়ার সদস্যরা সক্রিয়ভাবে নিউজার্সি ও নিউইয়র্কের মাঠে নামে। অন্যান্য ষ্টেট থেকে আসা নেতাকর্মীদের সাথে তখন তথাকথিত মূলধারার ক্যালিফোর্ণিয়া আওয়ামীলীগ ও তাদের পকেট অংগ সংগঠনের কিছু নামধারী ব্যক্তিরা সাংগঠনিকভাবে কোন কার্যকলাপে অংশ না নিয়ে ছবি তোলার মওকা খুজে বেড়াচ্ছিলেন। দেশ ও দলের বৃহত্তর স্বার্থে এই ধরনের কর্মকান্ডে সত্যিকারের আওয়ামীলীগার হিসাবে একসাথে কাজ করার আহবান জানান সুবর্ণ নন্দী তাপস।

 

ক্যালিফোর্নিয়া আওয়ামী পরিবারের সংবাদ সম্মেলন – অক্টোবর ২০১৮

Posted by Ekush NewsMedia একুশ নিউজ মিডিয়া on Saturday, October 13, 2018

সংবাদ সম্মেলনের সঞ্চালক ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, ক্যালিফোর্নিয়া শাখার সাধারন সম্পাদক জহির উদ্দীন আহমেদ পান্না। দেশ বা প্রবাস থেকে যারা আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহন বা সহযোগীতা করতে ইচ্ছুক তাদেরকে অতিসত্বর লীগের সহ-সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান সিদ্দিকের সাথে যোগাযোগের আহবান জানান। বিচ্ছিন্নভাবে স্থানীয় আওয়ামীলীগের দ্বন্ধ নিয়ে যাতে ক্যালিফোর্নীয়ার আওয়ামী পরিবারের মর্যাদা ক্ষুন্ন না হয় তার প্রতি দৃষ্টি রাখার জন্য তিনি যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দের প্রতি আহবান জানান।

অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ক্যালিফোর্নিয়া স্টেট আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকির খান, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, ক্যালিফোর্নিয়া শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক জামাল হোসেন, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক জামিউল ইসলাম বেলাল।

আরো বক্তব্য রাখেন ক্যালিফোর্নিয়া আওয়ামী স্টেট যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শ্যামল মজুমদার, লস এন্জেলেস সিটি আওয়ামী যুব লীগের সভাপতি আলমগীর হোসেন।

ক্যালিফোর্নিয়া স্টেট আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের পক্ষে বক্তব্য রাখেন সহ সভাপতি এলিজা হোসেন, সাধারন সম্পাদক আমির হোসেন সর্দার, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ইলিয়াস হোসেন ও ক্যালিফোর্নিয়া স্টেট মহিলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হাসিনা বানু। সংবাদ সম্মেলনে আরো বক্তব্য রাখেন জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সভাপতি আসাদুজ্জামান বাচ্চু।

Posted by Ekush NewsMedia একুশ নিউজ মিডিয়া on Friday, October 12, 2018