শহরে জীবনযাত্রার ব্যয় ৬ শতাংশ বেড়েছে : ক্যাব

গত বছরে শহরে জীবনযাত্রার ৬ শতাংশ ব্যয় বেড়েছে। একই সঙ্গে পণ্য ও সেবার মূল্য ৫ দশমিক ১৯ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে বলে জানিয়েছে ভোক্তা অধিকার বিষয়ক সংগঠন কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব)। শনিবার রাজধানী ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক সংবাদ সম্মেলনে দ্রব্যমূল্য ও জীবনযাত্রার ব্যয়বিষয়ক এক বার্ষিক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছেন সংগঠনটির চেয়ারম্যান গোলাম রহমান।


শিক্ষা, চিকিৎসা ও যাতায়াত ব্যয় বাদ দিয়ে জীবনযাপনের ব্যয় সংক্রান্ত এই প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। রাজধানীর ১৫টি খুচরা বাজার ও বিভিন্ন সেবার মধ্য থেকে ১১৪টি খাদ্যপণ্য, ২২টি নিত্যব্যবহার্য সামগ্রী ও ১৪টি সেবাখাতের তথ্য পর্যালোচনা করে ক্যাব এই হিসাব করেছে।

ক্যাবের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৮ সালে জীবনযাত্রার ব্যয় বেড়েছে ৬ শতাংশ। পণ্যমূল্য ও সেবা সার্ভিসের মূল্য বেড়েছে ৫ দশমিক ১৯ শতাংশ। পূর্ববর্তী ২০১৭ সালে জীবনযাত্রার ব্যয় বেড়েছিল ৮ দশমিক ৪৪ শতাংশ, পণ্যমূল্য ও সেবাসার্ভিসের মূল্য বেড়েছিল ৭ দশমিক ১৭ শতাংশ। অর্থাৎ আগের বছরের চেয়ে গত বছর জীবনযাত্রার ব্যয় বৃদ্ধি ২ দশমিক ৪৪ শতাংশ পয়েন্ট কম।

২০১৮ সা‌লে আগের বছরের তুলনায় সব ধরনের চালের গড় মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে ৮ দশমিক ৯১ শতাংশ। ত‌বে গতবছর সবচেয়ে বেশি দাম বেড়েছে প্রসাধনী পণ্য সাবা‌নের। পণ্যটির দাম গ‌ড়ে বে‌ড়ে‌ছে ২০ শতাংশ। অন্যান্য প‌ণ্যের ম‌ধ্যে মা‌ছের দাম বেড়েছে ১৩ দশমিক ৫০ শতাংশ, শাকসবজির দাম গড়ে বেড়েছে ৯ দশমিক ৩৮ শতাংশ।

এ ছাড়া তরল দুধে দাম বেড়েছে ১০ দশমিক ৩৩ শতাংশ, মাংসে ৩ দশমিক ৩৭ শতাংশ, ডিমে বে‌ড়ে‌ছে ৭ দশমিক ৭১ শতাংশ, চা-পাতায় বেড়েছে ৮ দশমিক ৮৯ শতাংশ। দুইকক্ষ বি‌শিষ্ট বা‌ড়ি ভাড়া ৫ দশমিক ৫ শতাংশ বে‌ড়ে‌ছে। এ ছাড়া শাড়ি কাপড়, না‌রি‌কেল তেল, ওয়াসার পা‌নি প্রভৃতি জিনিসের দাম বেড়েছে। তবে গত বছর ২০১৭ সালের তুলনায় ডাল, লবণ, মসলা ও চিনির দাম কমেছে।