ক্ষুদে গানরাজ ঝুমা ‘অপহৃত’

Khude Ganraj JHUMA - ekush.infoক্ষুদে গানরাজঝুমা আক্তারকে অপহরণের অভিযোগ এনে আদালতে মামলা করেছেন তার মা। রোববার নরসিংদীর আদালতে এই মামলা করেন জেসমিন বেগম। মামলায় আসামি করা হয়েছে পরিবারের পরিচিতজন মো. ইসরাফিল ও তার গাড়িচালক ফয়সালকে। জেসমিনের অভিযোগ, তার অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়েকে তুলে নিয়ে বিয়ে করার দাবি করেছেন ইসরাফিল এবং এ নিয়ে ‘বাড়াবাড়ি’ করলে মৃত্যুর হুমকি দিচ্ছেন। ২০০৮ সালে মেরিডিয়ান চ্যানেল আই ক্ষুদে গানরাজ প্রতিযোগিতায় প্রথম রানারআপ হয় ঝুমা। নরসিংদীর এই মেয়ে এখন ঢাকা ক্যামব্রিয়ান স্কুল ও কলেজে নবম শ্রেণিতে পড়ে।

জেসমিন বলেন, সাভারের একটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে গিয়ে আশুলিয়ার বাদাইল গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের ছেলে ইসরাফিলের সঙ্গে ঝুমার পরিচয় ঘটে। এরপর বসুন্ধরায় ঝুমা ও তার মায়ের বাসায়ও আসা-যাওয়া শুরু হয় ইসরাফিলের। তবে ইসরাফিলের সঙ্গে ঝুমার বিভিন্ন স্থানে যাওয়ার ক্ষেত্রে বাদ সাধেন জেসমিন। এনিয়ে ইসরাফিলের সঙ্গে জেসমিনের মনোমালিন্য হয়। এক পর্যায়ে মেয়েকে নিয়ে নরসিংদী চলে যান তিনি।

গত ২৩ জুলাই ঝুমাকে নরসিংদী জেলখানার মোড় থেকে ইসরাফিল ও ফয়সাল তুলে নিয়ে যায় বলে মামলায় অভিযোগ করা হয়। জেসমিন বলেন, ইসরাফিলের মোবাইলে যোগাযোগ করলে সে জানায়, ঝুমা তার বিবাহিত স্ত্রী। এ বিষয়ে বাড়াবাড়ি করলে জীবনে হত্যা করে ফেলবে বলেও আমাকে হুমকি দেয়। নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনালে করা মামলায় জেসমিন বলেছেন, তার মেয়ের বয়স ১৪ বছর। ফলে বিয়ের করার বয়স তার নয়। বাংলাদেশের আইন অনুযায়ী, ১৮ বছরের নিচে মেয়েদের বিয়ে দণ্ডনীয়।