ঢাকায় বিলবোর্ডে সরকারি উন্নয়নের ফিরিস্তি প্রচার: বিভিন্ন মহলে প্রতিক্রিয়া

বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন মোড় ও সড়ক দ্বীপের বিলবোর্ড সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের প্রচারণায় ব্যবহার করা হয়েছে। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যোগাযোগ, অর্থনীতি, প্রযুক্তিসহ বিভিন্ন খাতওয়ারি সরকারের সাড়ে চার বছরের উন্নয়ন চিত্র এসব বিলবোর্ড, ফেস্টুন ও পোস্টারের মাধ্যমে তুলে ধরে আরো উন্নয়নে সরকারের ধারাবাহিকতার কথা বলা হয়েছে। কারা এই বিলবোর্ড, পোস্টার টানিয়েছে তা স্পষ্ট না হলেও সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড তুলে ধরতে দলীয় সিদ্ধান্তেই এসব বিলবোর্ড লাগানো হয়েছে বলে একটি সূত্র জানিয়েছে।

প্রতিটি বিলবোর্ডেই রয়েছে ‘উন্নয়নের অঙ্গীকার ধারাবাহিকতা দরকার’ এই লাইনটি। এরই মাধ্যমে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন জোটকে পুনঃনির্বাচিত করার ইঙ্গিত দেয়া হচ্ছে।

সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বড় বড় বিলবোর্ডের মাধ্যমে প্রচার করার সমালোচনা করে বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল বলেছেন, “রাজধানীর উত্তরা থেকে আসার পথে দেখলাম বিভিন্ন স্থানে সরকারের উন্নয়নের ফিরিস্তি লেখা বিলবোর্ড টাঙানো হয়েছে। পাকিস্তান আমলে আইয়ুব খান উন্নয়নের দশক পালন করেছিল। এরশাদও করেছে। কিন্তু কোনো কাজ হয়নি। জনবিস্ফোরণে তাদের পতন হয়েছে।”

মির্জা ফখরুল বলেন, “রাস্তায় বড় বড় উন্নয়ন বিলবোর্ড লাগিয়ে যতই প্রচার করেন না কেন জনগণ আপনাদের দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। পাঁচটি সিটি নির্বাচন দেখেও সে বোধদয় উচিত। “

তবে, সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের প্রচারণা সমর্থন করে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ওমর ফারুক বলেন, এ কাজটি আরো আগে শুরু করা দরকার ছিল। কারণ, এ সরকারের আমলে যে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে তা জনগণের মাঝে ভালোভাবে প্রচার পায়নি।

অবশ্য, প্রবীন সাংবাদিক এরশাদ মজুমদার মনে করেন, দেশের রাস্তাঘাট উন্নয়ন বা বিভিন্ন সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়াটাই সরকারের কাজ, সে জন্যই তাকে লোকে ভোট দিয়ে ক্ষমতায় বসিয়েছে। কিন্তু, যখন জনগণ সরকারের দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নেয়, তখন এ সব বিলবোর্ড, টেলিভিশন প্রচারণা বা সংবাদপত্রে বিশেষ ক্রোড়পত্র প্রকাশ করে লাভ হয় না। তিনি বলেন, সরকার তার উন্নয়নের কথা প্রচার করলেও জনগণ তাদের নিজেদের জীবন থেকেই বুঝতে পারছে কাদের ভাগ্যে উন্নতি এসেছে।

সরকারের অপকর্ম, শেয়ার বাজার, ডেসটিনি হলমার্ক, রানা প্লাজা ধসে যারা সর্বস্বান্ত হয়েছেন তাদের কাছে এসব প্রচারণা একটা উপহাস।

এ সরকারের আমলে যারা হত্যা, গুম, নির্যাতনের শিকার হয়েছেন তাদের ফিরিস্তি বিলবোর্ডে না থাকলেও তাদের অসংখ্য পরিবার দিন গুণছে এর প্রতিকার তারা কবে কিভাবে পাবে।