শাহরুখ-দীপিকার চেন্নাই এক্সপ্রেস এবারের ঈদোত্সবে

শাহরুখ-দীপিকার
চেন্নাই এক্সপ্রেস
রেজাউল করিম খোকন

বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান দর্শকদের সামনে আসছেন ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’-এর একজন যাত্রী হয়ে। তার সঙ্গে সহযাত্রী হয়েছেন বলিউডের তরুণ প্রজন্মের ব্যস্ত জনপ্রিয় সুন্দরী অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন। ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’ ছবিটি নিয়ে দর্শকদের মধ্যে কৌতূহল এবং আলোচনার শেষ নেই। ব্যাপক প্রচারণার সুবাদে মুক্তির আগেই ছবিটি সুপার-ডুপার হিট পর্যায়ে পৌঁছে গেছে। অ্যাকশন-কমেডি-রোমান্সের অপূর্ব সমন্বয় এবং শাহরুখ-দীপিকা পর্দা জুটির চমত্কার রসায়ন ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’-কে সমৃদ্ধ করেছে সন্দেহ নেই। এর আগেও রুপালি পর্দায় ঝড় তুলেছিলেন শাহরুখ-দীপিকা। দীপিকার ক্যারিয়ার শুভ সূচনা হয়েছিল শাহরুখ খানের সঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয়ের মাধ্যমেই। অনেকদিন পর আবার তারা দু’জন আসছেন একসঙ্গে। শাহরুখ-দীপিকা জুটির ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’ জার্নি কেমন হবে—তা নিয়ে চলছে নানা জল্পনা। এসব নিয়ে লিখেছেন রেজাউল করিম খোকন

গত বেশ ক’বছর ধরে ঈদোত্সবগুলোতে সিনেমার পর্দায় সালমান খানের দাপটময় উপস্থিতি দর্শকদের ক্রমাগতভাবে আলোড়িত করে আসছে। ঈদোত্সব মানেই সালমান খানের ছবি—তেমন একটি ধারণার সৃষ্টি হয়েছে জনমনে। কিন্তু এবার সেই ধারায় ছেদ পড়ছে। এবারের ঈদে আসছে বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খানের ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’ ছবিটি। যা নিয়ে দর্শকদের মধ্যে কৌতূহলের শেষ নেই। সবাই অধীর আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষা করছেন ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’-এর জন্য। এ ছবিতে আবার অনেকদিন পর দীপিকা পাড়ুকোনের সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন কিং খান শাহরুখ। তারা দু’জন এর আগে একসঙ্গে ‘ওম শান্তি ওম’ ছবিতে অভিনয় করেছিলেন। ফারাহ খান পরিচালিত ওই ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে বলিউডে অভিনেত্রী হিসেবে দীপিকার অভিষেক হয়েছিল। এরপর তারা দু’জন পর্দা জুটি হিসেবে আর কোনো সিনেমায় অভিনয় করেননি গত পাঁচ বছরে। মাঝখানে ‘বিল্লু বারবার’ ছবিতে একটি আইটেম সঙ-এ দীপিকা শাহরুখ খানের সঙ্গে পারফর্ম করেছিলেন। ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’ ছবিটি প্রযোজক শাহরুখ পত্নী গৌরি খান। তার সঙ্গে আরও আছেন রনি স্ক্রুওয়ালা ও সিদ্ধার্থ রয় কাপুর (বিদ্যার বালানের স্বামী)। ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’ ছবিটি পরিচালন করেছেন রোহিত শেঠি। এই তরুণবয়সী চিত্রনির্মাতা ‘গোলমাল’ সিক্যুয়েলের ছবি ‘সিংহম’, ‘বোল বচ্চন’-এর মতো ব্লকবাস্টার বলিউডি সিনেমার পরিচালক হিসেবে ইতোমধ্যে নিজস্ব একটি আলাদা ব্র্যান্ড সৃষ্টি করেছেন। এখন দর্শক রোহিত শেঠির সিনেমা বলতে ধারণা করে নিতে পারেন তাতে অ্যাকশন-কমেডি-রোমান্স-ড্রামা-নাচ-গান সবকিছুই রয়েছে, যা ছোট-বড় সব বয়সী দর্শকের মনে ভরিয়ে দিতে যথেষ্ট। রোহিত শেঠির ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’ তেমনি অ্যাকশন কমেডি রোমান্স ঘরানার একটি ছবি। এ ধরনের সিনেমায় বলিউড কিং শাহরুখের প্রথম অভিনয়। এখানে তাকে অনেকটা ম্যাচো ইমেজে অ্যাকশন রোলে দেখা যাবে। শাহরুখ সচরাচর রোমান্টিক কমেডি ধাঁচের সিনেমাগুলোতে অভিনয়ের সুবাদে খ্যাতি ও জনপ্রিয়তার শীর্ষ চূড়ায় পৌঁছেছেন, ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’ এরচেয়ে অনেকটা ভিন্ন ট্র্যাকের সিনেমা। ননস্টপ অ্যাকশন থ্রিল সাসপেন্স ও কমেডির সঙ্গে রোমান্সের মিষ্টি আবেশ ছবিটিকে দর্শকপ্রিয় করে তুলবে সন্দেহ নেই। এ ছবির প্রধান তারকা এবং প্রযোজক হিসেবে শাহরুখ নিজেও তেমনটি প্রত্যাশা করছেন। ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’ ছবিতে শাহরুখ খান আসছেন চল্লিশে পা রাখা এক টগবগে তারুণ্য দীপ্ত মানুষ রাহুলের চরিত্রে। স্মার্ট সুদর্শন, বুদ্ধিমান চৌকষ এই যুবক বুড়ো দাদুর স্নেহের ছায়ায় বড় হয়েছে। দাদুর দেখাশোনা করতে করতে বিয়ের ফুরসত হয়নি রাহুলের। এদিকে বিয়ের বয়সও পেরিয়ে গেছে। প্রিয় দাদুর মৃত্যুর পর তার অন্তিম ইচ্ছাপূরণের জন্য তার চিতাভস্ম তামিলনাড়ুর প্রত্যন্ত এলাকায় অবস্থিত তীর্থস্থান রামেশ্বরমে নিবেদনের লক্ষ্যে চেন্নাই এক্সপ্রেস ট্রেনে তামিলনাড়ুর পথে যাত্রা শুরু করে। হঠাত্ করেই চেন্নাই এক্সপ্রেস ট্রেনে রাহুলের সহযোত্রী হয় এক অনিন্দ্যসুন্দরী তামিল তরুণীরূপী দীপিকা পাড়ুকোন। ওই তরুণীর নাম মিনা। পরস্পর বিরোধ ভাষা ও সংস্কৃতি নিয়ে শুরুতে রাহুল ও মিনার মধ্যে তর্ক-বিতর্ক-সমালোচনার ঝড় বইলেও এক সময়ে তারা দু’জন পরস্পরের প্রতি আকৃষ্ট হয়। একসময় রাহুল জানতে পারে মিনা তামিলনাড়ুর এক প্রভাবশালী মাফিয়া ডনের কন্যা। মিনার মা নেই। বিরাট এক যৌথ পরিবারের আদুরে মেয়ে সে। এরপর একে একে ঘটতে থাকে চমকপ্রদ সব নাটকীয় ঘটনা। বিজাতীয় ভাষা ও সংস্কৃতি এবং অপরিচিত পরিবেশে রাহুল-মিনার রোমান্টিক অ্যাডেভেঞ্চার নিয়ে ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’ ছবির গল্প আবর্তিত হয়েছে। শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত রূদ্ধশ্বাসে দর্শক ছবিটি উপভোগ করবেন। রোমান্টিক হিরোর চিরন্তন ইমেজের বাইরে অনেকটা ম্যাচো টাইপের রোলে শাহরুখের আবির্ভাব দর্শকদের জন্য নতুন অভিজ্ঞতা হিসেবে বিবেচিত হবে। অনেকদিন পর দীপিকাকে পর্দা জুটি হিসেবে পেয়ে শাহরুখও বেশ খুশি। আন্তরিকতা নিয়ে কাজ করেছেন তার সঙ্গে। দু’জনের মধ্যেকার কেমিস্ট্রিও বেশ জমে উঠেছে। ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’ ছবিটি দেখতে বসে দর্শক এটা বেশ উপলদ্ধি করবেন। দীপিকাও শাহরুখকে নায়ক হিসেবে পেয়ে উচ্ছ্বসিত। ‘গত কয়েক বছরে বলিউডে থেকে যা শিখেছি ও জেনেছি তা কাজে লাগাতে চেয়েছি ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’ ছবিতে, শাহরুখ খানও আমার কাজ দেখে আনন্দিত, আমি অনেকটা ডেভেলপ করেছি নিজেকে গত ক’বছরে—এটা উপলব্ধি করেছেন তিনি’, দীপিকা বলেন। ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’ অতীতের ঈদের ছবির সব সাফল্যের রেকর্ড ভাঙবে—শাহরুখ খানও তেমনটি প্রত্যাশা করছেন।